শেখ সেলিমের জামাতার শারীরিক অবস্থার উন্নতি

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক : শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় আহত আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের জামাতা মশিউল হক চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। ১২ ঘণ্টা পর মঙ্গলবার সকালে কথা বলেছেন তিনি।

হামলায় নিহত শেখ সেলিমের নাতি জায়ান চৌধুরীর মরদেহ বুধবার দেশে আসছে। বাদ আসর বনানী মাঠে জানাজা হবে।

সোমবার দুপুরে জানাজাস্থল পরিদর্শনে এসে এসব তথ্য জানালেন শেখ সেলিম নিজেই।

নাতি জায়ান চৌধুরী নিহত হবার পর প্রথমবারের জন্য বাসার বাইরে বেরিয়েছেন তিনি। নাতির জানাজার জন্য নির্ধারিত বনানী চেয়ারম্যান বাড়ি মাঠ পরিদর্শন করেন শেখ সেলিম। পরিদর্শনকালে তিনি জানাজা অনুষ্ঠান সুষ্ঠু ও শৃঙ্খলার মধ্যদিয়ে শেষ করতে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন।

এসময় আনুষ্ঠানিকভাবে সংবাদকর্মীদের সঙ্গে কথা না বললেও অনানুষ্ঠানিকভাবে জামাতা মশিউল হক চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার খবর জানান।

তিনি বলেন, বোমা হামলায় আহতের পর ওই দিন (রোববার) সন্ধ্যায় জায়ানের বাবার পায়ে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। গতকাল তার হাসপাতাল পরিবর্তন করে জায়ানকে যে হাসপাতালে রাখা হয়েছিলো সেই হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এখন সে নিবিড় পর্যবেক্ষণের (আইসিইউ) মধ্যে রয়েছে।

মশিউল শঙ্কামুক্ত কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত তার শরীরে ৪ লিটার রক্ত দেওয়া হয়েছে। পেটের ভেতর বোমার স্প্লিন্টার রয়ে গেছে। তবে আশার কথা হচ্ছে, ১২ ঘন্টা পর আজ সকালে সে কথা বলেছে।

শঙ্কামুক্ত না বললেও মশিউলের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে বলে এসময় জানান সেলিম৷

এদিকে মাঠে প্রবেশ করেই শেখ সেলিম জায়ানের মরদেহ রাখার জন্য নির্ধারিত স্থানে যান। সেখানে পূর্বপরিকল্পত ১৬ বাই ১২ ফুট মঞ্চের পরিবর্তে ১৮ বাই ১২ ফুট করার নির্দেশ দেন। সেই সঙ্গে মঞ্চ ২ ফুট পর্যন্ত উঁচু করে তা কালো কাপড় দিয়ে ঢেকে ফেলার নির্দেশ দেন।