এটিএম শামসুজ্জামানের চিকিৎসায় ১০ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্পন্দন ডেস্ক::

এটিএম শামসুজ্জামানের চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ১০ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে। রাজধানীর পুরান ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে সোমবার সকালে বর্ষীয়ান এই অভিনেতার মেয়ে কোয়েলের হাতে চেক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

ওই আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন, সংগীতশিল্পী রফিকুল ইসলামসহ অনেক।

এদিকে শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এটিএম শামসুজ্জামানের মৃত্যুর গুঞ্জন ‍ওঠে। তখন পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এটিএম শামসুজ্জামানের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

গুণী অভিনেতার মেয়ে কোয়েল বলেন, এর আগেও আমার বাবার মৃত্যুসংবাদ এভাবে ফেসবুকে ছড়ানো হয়েছে, তখন আমার বাবা হাসতেন আর বলতেন, ‘এদের জন্য আল্লাহ মনে হয় আমার হায়াত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। এবারও যারা এ রকম খবর ছড়াচ্ছেন, আমরা মনে করি, তাদের মাধ্যমে হয়তো আল্লাহ আমার বাবার হায়াত বাড়িয়ে দেবেন। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। তার অবস্থা আগের মতোই স্থিতিশীল আছে।

আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন মাত্র। এখন একটু টায়ার্ড আছেন। আজকেও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া আংকেলের সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি আর ডা. সামন্ত লাল আংকেল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন। তারপর আমরা সিদ্ধান্ত নেব, দেশে নাকি বিদেশে চিকিৎসা করানো হবে।

২৬ এপ্রিল নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন এটিএম শামসুজ্জামান। অবস্থার অবনতি হলে ৩০ এপ্রিল বিকেল তিনটার দিকে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। ৩ মে দুপুরে অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলে লাইফ সাপোর্ট খুলে দেওয়া হয়। এরপর আরও একবার তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। সবশেষ ১১ মে তার লাইফ সাপোর্ট খুলে দেওয়া হয় অভিনেতার।