শার্শায় দুই সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

::নিজস্ব প্রতিবেদক::
যশোরের শার্শা উপজেলায় দুই সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন এক নারী। রোববার রাত আনুমানিক ১১টার দিকে উপজেলার কায়বা ইউনিয়নের চালিতাবাড়ীয়া দীঘা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের চা দোকানি ইব্রাহিমের স্ত্রী হামিদা খাতুন (৩৫), তার মেয়ে শরিফা খাতুন (১২) ও ছেলে সোহান হোসেন (৫)।

জানা যায়, দরিদ্রতার কারণে সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা ছিল ইব্রাহিমের। অভাব অনটন লেগে থাকার কারণে সংসারে ঝামেলা লেগেই থাকে। আসন্ন ঈদে সন্তানদের নতুন জামাকাপড় কেনাকাটাসহ সাংসারিক অভাব অনটনের নানা বিষয় নিয়ে ঘটনার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তুমুল ঝামেলা ও তর্কাতর্কি হয়।

এক পর্যায়ে স্ত্রী হামিদা খাতুন (৩৫), কন্যা শরিফা (১১) ও শিশু পুত্র সোহানকে (০৪) বিষ ট্যাবলেট খাইয়ে মেরে ফেলে এবং তাদের মৃত্যু নিশ্চিত করে নিজেও বিষ ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেন। ঘটনার সময় ইব্রাহিম দোকানে ছিলেন।

বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই সুকদেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ ৩টি উদ্ধার করা হয়েছে।