প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য বড় নিয়ামত …. শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল :

৮৫ যশোর-১(শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন আমরা সিয়াম সাধনা করি মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য। গভীর রাতে আরামের ঘুমকে বিসর্জন দিয়ে পানাহার করা হয় সিয়াম সাধনার সেহেরীর জন্য। পরে সারাটি দিন অক্লান্ত পরিশ্রমের মধ্যেও একটু পানাহার পর্যন্ত করি না। অনেক সময় পানির পিপাসায় বুকটা চৌচির হয়ে যেতে থাকে। তারপরেও চেষ্টা করিনা লুকিয়ে থেকেও পানাহার করবার। যার একটিই উদ্দেশ্য, মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ করা। তাই, পবিত্র রমজান মাসের সিয়াম সাধনার মতো মন মানসিকতা নিয়ে আমাদের প্রত্যেক মানুষকে অন্যান্য মানুষের প্রতি সহানুভূতি দেখাতে হবে। ভালো বাসতে হবে নিজ দেশকে। বুধবার বিকেলে শার্শা উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদ আয়োজিত বিশাল এক ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।
শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূলক মন্ডলের সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আরো বলেন, আমরা সকলেই চাই একটু ভালোভাবে সম্মানের সাথে বেঁচে থাকতে। যেখানে থাকবেনা ক্ষুধা আর দারিদ্রতা। প্রত্যেক মানুষ অন্ন পাবে, বাসস্থান পাবে, চিকিৎসা পাবে, শিক্ষা পাবে আর মানুষের মতো মানুষ হয়ে বাঁচতে পারবে। যা বাস্তবায়ন করতে এদেশের প্রতিষ্ঠাতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা বদ্ধ পরিকর। আমি বিশ^াস করি তিনি মানবতার মা। যে শিক্ষা তিনি তাঁর বাবার আদর্শ থেকে নিয়েছেন সেই শিক্ষায় দেশ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তাই আসেন আমরা সকলে মিলে উন্নয়নের কারিগর প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করি। প্রত্যেক মানুষ যেমন নিজ সন্তানকে ভালোবাসেন তদ্রুপ তিনিও এদেশের মানুষকে অনেক ভালোবাসেন। মনে রাখবেন, এদেশের জন্য তাঁর বাবা, মা, ভাইসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজনদের জীবন দিতে হয়েছে। তাদের একমাত্র অপরাধ ছিল বাংলার মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসার জন্য দেশকে স্বাধীন করা। সর্বোপরি দেশকে ভালোবাসা। যা এদেশের পরাজিত শত্রুরা মেনে নিতে পারেনি। তাইতো তারা বঙ্গবন্ধুসহ তাদের স্বপরিবারে হত্যার মিশন নেয়। কিন্তু মহান আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে কেবল বাংলাদেশের দুর্ভাগা মানুষের শক্ত হয়ে বেঁচে থাকার শেষ অবলম্বন শেখ পরিবারের দু’কন্যাকে বিদেশ থাকার উছিলায় বাঁচিয়ে যান। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য বড় নিয়ামত। এজন্য দলমত নির্বিশেষ আমরা উন্নয়নমুখী সরকারের হাত শক্তিশালী করতে পারলেই এদেশ একদিন বিশে^র দরবারে মাথা উঁচু করে দাড়াবে বলে মন্তব্য করেন শেখ আফিল উদ্দিন এমপি।
এসময় সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন এদেশের সরকার পরিচালনাকারী দল আওয়ামী লীগের সফল সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের জন্যও দোয়া প্রার্থনা করেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের সাথে আরেক উন্নয়নের কারিগর ওবায়দুল কাদের ইতিমধ্যে মৃত্যু পথযাত্রী ছিল প্রায়। সেখানে মহান রাব্বুল আলামীন তাঁকে শেখ হাসিনার আর্শিবাদসহ দেশবাসীর আর্শিবাদে বাঁচিয়ে দিয়েছেন। তাই, তিনি যাতে সুস্থ শরীরে আবারো পূর্বের ন্যায় দেশকে পরিচালনা করতে পারে সেজন্য সকলে মনে প্রাণে দোয়া করবেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, উপজেলা সহকারি কর্মকর্তা (ভূমি) মৌসুমী জেরিন কান্না, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ সভাপতি আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, আলহাজ্ব সালেহ আহমেদ মিন্টু, কোষাধ্যক্ষ আলহাজ ওয়াহিদুজ্জামান, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, শার্শা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, শার্শা সদর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ বজলুর রহমান, উলাশী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ আয়নাল হক, বাগ আঁচড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ ইলিয়াছ কবির বকুল, কায়বা ইউপি চেয়ারম্যান হাসান ফিরোজ আহমেদ টিংকু, গোগা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আব্দুর রশিদ, পুটখালী ইউপি চেয়ারম্যান হাদিউজ্জামান, বাহাদুরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, লক্ষণপুর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারা বেগম, নিজামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আযাদ, ডিহি ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন আলীসহ উপজেলা প্রশাসনিক কর্মকর্তা, পুলিশ প্রশাসন ও বিভিন্ন ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক, গণমাধ্যম কর্মী ও সামাজিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

শেখ কাজিম উদ্দিন