নওয়াপাড়ায় আটক ভুয়া মানবাধিকার কর্মী ও ডিবি সদস্য

অভয়নগর (যশোর)প্রতিনিধি>
নওয়াপাড়ায় কথিত এক মানবাধিকার কর্মী ও ভুয়া ডিবি সদস্যকে চাঁদাবাজি ও প্রতারণার অভিযোগে আটক করেছে জনতা । পরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ঘটনাটি শুক্রবার রাতে পৌরসভার ধোপাদী গ্রামের দপ্তরীপাড়া এলাকায় । এ ঘটনায় ভুয়া কার্ডধারী মানবাধিকার উপজেলার বুনোরামনগর এলাকার নূরুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩০) ও ভুয়া ডিবি সদস্য একই এলাকার নিজাম হাওলাদারের ছেলে বাপ্পী হোসাইন (২৮) কে অভয়নগর থানা পুলিশ আটক করেছে। প্রতারণার স্বীকার হয়ে ধোপাদী দপ্তরী পাড়া এলাকার ইউনূস আলী দপ্তরীর ছেলে আইয়ুব হোসেন জানান, বাড়িতে কোন পুরুষ সদস্য না থাকায় মনিরুল ও বাপ্পী প্রশাসনের নাম ভাঙ্গিয়ে তাদের ছোট ভাই ইমানুর দপ্তরীর নামে মিথ্যা মামলার ভয়ভীতি দেখিয়ে ভালো তদন্ত রিপোর্ট প্রদান করবেন বলে কিছু টাকা নিয়ে কৌশলে শটকে পড়ে। পরে একই এলাকার রাজমিন্ত্রী কর্মী টিটোর স্ত্রী রাজিয়াকে বেতারের কোণা নামক এলাকার ৪ রাস্তার মোড়ে ডেকে তার স্বামী টিটোর নামে মামলার কথা বলে ৫শ টাকা হাতিয়ে নেয়। এসময় স্থানীয়রা ঘটনাটি পর্যবেক্ষণ করে প্রতারক ২ জনকে চ্যালেঞ্জ করলে প্রতারক মনিরুল ও বাপ্পী পালানোর চেষ্টা করে। জনতা প্রতারকদের আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে পুলিশে হস্তান্তর করে। এ ঘটনায় অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) রকিবুজ্জামান জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে তাদের যশোর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।