প্রেমের টানে জার্মান নারী খুলনায়

ফুলবাড়ীগেট প্রতিনিধি : বাংলাদেশি তরুণের টানে বিদেশি নারীরা বাংলাদেশে ছুটে আসছে এমন ঘটনা নতুন না। এবার সে তালিকায় যোগ হলো আরও এক নাম। তিনি জার্মানির নাগরিক ক্রিস্টিয়াল।

জার্মান নাগরিক ক্রিস্টিয়াল স্বামী সংসার ফেলে আসাদ মোড়লের প্রেমে টানে এখন খুলনায়। ক্রিস্টিয়াল প্রেমে মুগ্ধ হয়ে বাংলাদেশে এসেই ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে আসাদের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে।

জানাগেছে, খুলনার খানজাহান আলী থানাধীন যোগিপোল ৭নং ওয়ার্ডের ইব্রাহিম মোড়লের পুত্র এমডি আসাদ মোড়লের(৪০) সাথে দুই বছর আগে জার্মানীর এ্যাসটিট ক্রিস্টিয়াল কাসুমী সিউর(৪৩)সাথে ফেজবুকে ফ্রেন্ডশীপ হয়। এক পর্যায় দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ক্রিস্টিয়াল সম্পর্ককে বাস্তবে রুপ দিতে জার্মানী স্বামীকে ডির্ভোস দিয়ে ১০ জুন ঢাকায় আসে। ১১জুন সে আসাদের খোজে খুলনায় এসে একটি অভিযাত হোটেলে ওঠেন। সেখানে দুজনের মধ্যে প্রথম বারের মতো সরাসরি স্বাক্ষাত হয়। ১২জুন ক্রিস্টিয়াল খুলনা নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে খ্রিস্টান ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে। ১৩ জুন তাদের দু’জনের কোর্ডের মাধ্যমে বিবাহ হয় বলে উভয়ে জানিয়েছেন।

ক্রিস্টিয়াল সাংবাদিকদের বলেন, ‘আসাদের সাথে আমার দীর্ঘদিনের সম্পর্ক বাস্তবায়নে আমি বাংলাদেশে এসে সরাসরি তাকে দেখে বুঝে ইসলাম ধর্মগ্রহন করে বিবাহ করেছি। এখন আমরা সুখি। বিষয়টির সত্যতা স্বিকার করে আসাদ বলেন তার জীবন সঙ্গি হতে পেরে আমিও খুবই সুখী’।

এদিকে তরুন যুবক আসাদের সাথে জার্মান নাগরীকের বিবাহ হওয়ার কথা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সকলের মধ্যে বিশেষ কৌতুহল ছড়িয়ে পড়ে। এ বিষয়ে আসাদের পিতা ইব্রাহিম মোড়ল বলেন ছেলে যাকে নিয়ে সুখী হবে তাতে আমাদের কোন আপত্তি নাই তবে কখন ভাবীনি সে কখন বিদেশীনীকে বিবাহ করবে।