যশোরে কর্মশালা> এসডিজি উন্নয়নে শিশু ও নারী উন্নয়নের বিকল্প নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক>

নারী ও শিশুদের উন্নয়নে যশোরে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার নারী ও শিশু উন্নয়নে যোগাযোগ কার্যক্রমের আওতায় যশোর সার্কিট হাউসের সভাকক্ষে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। যশোর জেলা তথ্য অফিস কর্মশালাটির আয়োজন করে।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল। কর্মশালায় তিনি বলেন, মানুষ সব নেশা ছাড়তে পারলেও মাদকের মতো ভয়ংকর নেশা ছাড়তে পারেনা। শিশুরাও অনেক সময়ে অদ্ভুত সব নেশায় ঝুঁকে পড়ে। তাদেরকে ভালোবাসা আদর ও ¯েœহ দিয়ে আলোর পথে আনতে হবে। তিনি আরো বলেন, এখন রাষ্ট্র পরিচালনা থেকে শুরু করে গুরুত্বপূর্ণ সব খানেই নারীকে প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে। সরকারের এই উন্নয়ন কাজে সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে। সরকারের পরিকল্পনায় শিশু ও নারীর এখন ব্যাপক উন্নয়ন ঘটছে। বর্তমানে আগের মতো আর বাসায় কাজের জন্য মহিলাদের পাওয়া যায়না। মহিলারা নিজেরাই স্বাবলম্বি হতে বিভিন্ন পেশায় ঝুঁকে পড়ছে। তিনি বলেন এসডিজি উন্নয়নে শিশু ও নারী উন্নয়নের বিকল্প নেই।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা এএসএম কবীর। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নূর জাহান ইসলাম নিরা ও প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন।

কর্মশালায় বিষয় ভিত্তিক রিসোর্স পার্সনের বক্তব্য রাখেন জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাধন কুমার দাস। মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন জেলা সিনিয়র স্বাস্থ্য কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন, শিক্ষাবিদ মশিউল আজম, প্রবীণ শিক্ষক তারাপদ দাস, মাওলানা ইয়াছিন আলী, অ্যাডভোকেট সালেহা বেগম, রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ যশোরের সভাপতি শ্রাবনী সুর প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এবং অনুষ্ঠানটি সঞ্চলনার দায়িত্ব পালন করেন সহকারি তথ্য অফিসার জাহারুল ইসলাম ও এলিন সাইদুর রহমান।