যশোর পলিটেকনিকের পাঁচ ছাত্র ছুরিকাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক>
প্রকাশ্যে ধুমপানের প্রতিবাদ করার জেরে মঙ্গলবার যশোর পলিটেকনিক কলেজের পাঁচ ছাত্র ছুরিকাহত হয়েছে। ধুমপায়ী তিন ছাত্রের ডাকে বহিরাগতরা ক্যাম্পাসে ঢুকে তাদের উপর হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। আহতরা হলেন যশোর শহরের বারান্দীপাড়ার আব্দুল মজিদের ছেলে সাব্বির হোসেন (১৯), শহরতলী শেখহাটি জামরুল তলার রবিউল ইসলামের ছেলে ইব্রাহিম (১৮), শেখহাটি বাবলাতলার মাদুল মিয়ার ছেলে শান্ত (১৮), জামাল গাজীর ছেলে সোহাগ (১৮) ও গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার খাগবাড়িয়া তোফায়েল মোল্লার ছেলে তন্ময় (১৮)। আহতরা যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
এদিন দুপুর দেড়টার দিকে ক্লাস চলাকালীন ক্যাম্পাসে বসে প্রকাশ্যে ধুমপান করছিলো উৎসব, শয়ন ও মিকাঈল নামে তিন ছাত্র। এই ঘটনার প্রতিবাদ করে তন্ময়, ইব্রাহিমসহ আরো কয়েকজন। এই নিয়ে উভয়ের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। এসময় ধুমপায়ী তিনজন মোবাইল ফোনে বহিরাগতদের ঘটনাটি জানিয়ে ক্যাম্পাসে আসতে বলে। বহিরাগতরা এসেই উল্লিখিত পাঁচ ছাত্রকে ছুরিকাঘাত করে চলে যায়। যশোর উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ফারুক জানান, ঘটনাটি জেনে হাসপাতালে আহতদের খোঁজ খবর নিতে এসেছি। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, ধুমপান করা নিয়ে দ্বন্দ্বে এই ঘটনাটি ঘটেছে। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আহমেদ তারেক শামস জানান, আহত পাঁচ জনের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর।