খাশোগি হত্যায় যুবরাজের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ নতুন নয় : সৌদি

 

সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের জড়িত থাকার বিশ্বস্ত প্রমাণ আছে বলে জাতিসংঘের করা দাবিকে প্রত্যাখ্যান করেছে সৌদি আরব। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়ের এমন অভিযোগকে ‘নতুন কিছু না’ বলে অভিহিত করেছেন।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়ের জাতিসংঘের এমন দাবির প্রতিক্রিয়া জানিয়ে টুইট বার্তায় বলেন, ‘নতুন কিছু নেই। জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের দূত যে দাবি করেছেন তাতে স্পষ্টতই বিরোধ আছে। ভিত্তিহীন এমন অভিযোগ তার বিশ্বস্ত প্রমাণে ব্যর্থ।’

ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক জামাল খাশোগি হত্যার সঙ্গে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান এবং সৌদির অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জড়িত বলে বুধবার জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়। জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা বলছে, যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সংশ্লিষ্ট থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর প্রথমবারের মতো স্বাধীন একটি তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডবিষয়ক বিশেষ দূত অ্যাগনেস ক্যালামার্ড। প্রতিবেদনে ক্যালামার্ড বলেছেন, ‘বিশ্বাসযোগ্য’ প্রমাণ পাওয়া গেছে যে, খাশোগি হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে শুধু যুবরাজ সালমান নয় আরও বেশ কিছু ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তার জড়িত ছিলেন।

সৌদি যুবরাজকে ইঙ্গিত করে প্রতিবেদনে জোর দিয়ে বলা হয়েছে, ‘কাউকে দোষী বানানোর জন্য এই উপসংহারে পৌঁছানো হয়নি। এই সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর কারণ যথাযথ কর্তৃপক্ষ যাতে আরও তদন্ত চালাতে পারে; আর এ জন্য বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণও রয়েছে।’