বিআরটিএর দুই অফিসসহ বিভিন্ন স্থানে দুদকের অভিযান

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক :  ড্রাইভিং ও গাড়ির লাইসেন্স, মালিকানা পরিবর্তন ও ফিটনেস সার্টিফিকেট প্রদানে অনিয়মের অভিযোগে মাদারীপুর বিআরটিএ-তে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) অভিযোগ পাওয়ার পর সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ফরিদপুর থেকে সোমবার এ অভিযান চালানো হয়।

দুদক টিমের উপস্থিতি টের পেয়ে অভিযুক্ত আউটসোর্সিং কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। টিম পরবর্তীতে কর্মচারী নিয়োগের ক্ষেত্রে অধিকতর সচেতন হওয়ার জন্য সহকারী পরিচালককে পরামর্শ প্রদান করে। এছাড়া টিমের পক্ষ থেকে অনিয়মের অভিযোগ তাৎক্ষণিকভাবে দুদক হটলাইনে জানানোর পরামর্শ দেওয়া হয়।

একই ধরনের অভিযোগে কেরানীগঞ্জ বিআরটিএ অফিসে অভিযান চালায় দুদক। সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১ থেকে এ অভিযান চালানো হয়। দুদক টিম জানতে পারে, বয়স প্রমাণের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র জন্ম নিবন্ধন সনদ অথবা পাসপোর্ট যেকোনো একটির তথ্যাবলী যাচাই সাপেক্ষে লাইসেন্স প্রদান করা হয়। দুদক টিম সম্প্রতি সরবরাহকৃত লাইসেন্সসমূহের তথ্যাবলী সংগ্রহ করে। তথ্য বিশ্লেষণপূর্বক কোনো অনিয়ম পাওয়া গেলে কমিশনে সুপারিশসহ প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে।

এদিকে দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে আগত অভিযোগসমূহের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণপূর্বক কমিশনকে অবহিত করার জন্য দুই জেলার সিভিল সার্জন, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী, এক জেলার পুলিশ সুপার এবং ৯ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে চিঠি দিয়েছে দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিট।