মেজবানে মাংস খেয়ে শতাধিক মানুষ অসুস্থ

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক :

যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যে বসবাসকারী চট্টগ্রামবাসীর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী মেজবানের গরুর মাংস খেয়ে শতাধিক মানুষ অসুস্থ হয়েছে।

গত ২৯ জুন (শনিবার) ব্রিজপোর্টের সিসাইড পার্কে অনুষ্ঠিত মেজবানের রান্না করা গরুর মাংস সঠিকভাবে সংরক্ষণ না করায় অধিকাংশ তরকারি খাদ্য বিষক্রিয়ায় নষ্ট হয়ে যায়। অনুষ্ঠানে দুই হাজারের বেশি মানুষ মেজবান খেতে আসেন। গাড়িতে রাখা নষ্ট হওয়া গরুর মাংস দিয়ে কিছু সংখ্যক মানুষকে খাওয়ানো হয়। এদের মধ্যে শতাধিক মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পেটের পীড়া ও পাতলা পায়খানায় আক্রান্তদের অনেকেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবনে বাধ্য হন।

ম্যানচেস্টারের একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, যেভাবে গরুর মাংস রান্না করা হয়েছে তাতে চট্টগ্রামের মেজবানের ঐতিহ্য বিনষ্ট হয়েছে। কারণ হিসেবে তারা বলেন, প্রায় সবগুলো গরুর মাংসই অতিরিক্ত সিদ্ধ করার ফলে ‘মাংসের ডাল’ খেতে হয়েছে। ভিন্নরকম স্বাদের রান্না করা মাংস দিয়ে অতিথি আপ্যায়ন করাকেই ‘মেজবান’ বলা হয়ে থাকে। কিন্তু এবারের রাঁধুনী সেই স্বাদ নষ্ট করেছেন। এটাকে কোনো মেজবান বলা যায় না।

তারা জানান, মাংসের ডাল দিয়েও ভাত খাওয়া যেত। কিন্তু রান্না করা কিছু মাংস প্রচণ্ড গরমে নষ্ট হয়ে যায়। উপায় না পেয়ে আয়োজকরা সেই তরকারি দিয়েই অতিথিদের আপ্যায়ন করেন। ফলে শতাধিক মানুষ পেটের ব্যথা ও পাতলা পায়খানায় আক্রান্ত হন।

গত এক সপ্তাহ জুড়ে কানেকটিকাটের প্রবাসীদের মাঝে শুধু মেজবানে মাংসের ডাল কথাটিই মুখ্য আলোচনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ ব্যাপারে মেজবান পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিবসহ অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা সঠিক তথ্য সরবরাহ করেননি। এমনি কি প্রকৃত ঘটনা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।