ঝিকরগাছায় তিন গ্রামের পাঁচ বাড়িতে ডাকাতি: চার ডাকাতের স্বীকারোক্তি

::নিজস্ব প্রতিবেদক::
যশোরের ঝিকরগাছার পল্লিতে এক রাতে তিন গ্রামের ৫ বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় ৪জনকে আটক করেছে ঝিকরগাছা থানা পুলিশ। আটক চারজন ডাকাতির কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে যশোর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে চারজনকে হাজির করা হয়। পুলিশ এক প্রেসব্রিফিংয়ে ডাকাতি হওয়া কিছু মালামাল এবং ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারের তথ্য দেয়।

আটক চারজন হলেন- ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার ছবদেলপুর মানিকদি গ্রামের গোপাল মন্ডল ওরফে গুপলা মন্ডলের ছেলে লাল্টু (৩৮), নাটোর সদর উপজেলার কেশনচক বোদনা রেলস্টেশন এলাকার বলাই মন্ডলের ছেলে আবু বক্কার (৩৮), যশোর সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের হাশেম বাঙ্গালের ছেলে মহাসিন (৫৩) এবং কেশবপুর উপজেলার বড়েঙ্গা গ্রামের মোসলেম সরদারের ছেলে শাহীন (২৩)।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত একটার দিকে ৬/৭জনের একটি সশস্ত্র ডাকাতদল ঝিকরগাছার রাজাপুর গ্রামের মজিদ গাজীর ছেলে টিপুর বাড়িতে হানা দেয়। তারা অস্ত্রের মুখে বাড়ির লোকজনকে জিম্মি করে নগদ ৮০ হাজার টাকা এবং বেশ কিছু পরিমাণ সোনার গহনা নিয়ে যায়। এরপর চাঁপাতলা দক্ষিণপাড়ার মিজানুর রহমান বাদশার বাড়িতে ঢুকে ডাকাতি করে।

পরে বর্ণি গ্রামের সন্তোষ মোড়লের মেয়ে সখিনা বেগম, আমজাদ আলীর ছেলে শরিফুল ইসলাম এবং আতিয়ার রহমানের বাড়িতে ঢুকে বাড়ির সকলকে জিম্মি করে নগদ টাকা ও সোনার অলংকার লুট করে।

ঘটনার পর ঝিকরগাছা থানা পুলিশ ডাকাত আটক ও ডাকাতির মালামাল উদ্ধারে অভিযান চালায়। পুলিশ বুধবার সারাদিন অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে ওই চারজনকে আটক করে। তাদের কাছ থেকে ডাকাতি করা ১৯ হাজার ৩৯০ টাকা, একজোড়া সোনার বালা, একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। একই সাথে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত তিনটি দা জব্দ করা হয়।
বৃহস্পতিবার সকালে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এ সম্পর্কিত একটি ব্রিফিং দেন পুলিশ সুপার মইনুল হক।

উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) সালাউদ্দিন শিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়ার্টার) অপু সরোয়ার প্রমুখ।

দুপুরে ওই চারজনকে আদালতে হাজির করা হয়। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শম্পা বসুর আদালতে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। ডাকাতরা জানিয়েছে, তারা ওই ডাকাতির দলে মোট ৬জন ছিলো। দুইজন পালিয়ে গেলেও পুলিশ তাদের আটক করে। ডাকাতি করা মালামাল ওই চারজনের কাছে আছে বলে তারা আদালতকে জানায়।