স্বামী-স্ত্রী হতাহত: সৌদিয়ার চালক ও সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে মামলা

 

ফাইল ফটো

::নিজস্ব প্রতিবেদক::
যশোর-মাগুরা সড়কে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী গৃহবধূ বিউটি বেগম (৩০) নিহত এবং তার স্বামী জহির উদ্দিন বাবর আহত হওয়ার ঘটনায় বাস চালক ও সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। নিহতের পিতা যশোর সদর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের আমির আলী মামলাটি করেন।

আসামিরা হলেন সৌদিয়া পরিবহনের চালক রাজবাড়ি সদর উপজেলার চরলক্ষ্মীপুর গ্রামের জোনাব ফকিরের ছেলে শহিদ ফকির (৩৭) এবং সুপারভাইজার চট্টগ্রামের বায়েজীদ থানার নাছিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির শাহ আলম ভুঁইয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম আল-আমিন (২৩)।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, বৃহস্পতিবার তার মেয়ে বিউটি বেগম ও জামাই বাবর একটি মোটরসাইকেলে করে আত্মীয়ের বাড়ি থেকে যশোরের কাশিমপুরে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে যশোর-মাগুরা সড়কের কোদালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছালে বিপরীত দিক দিয়ে আসা সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাস (চট্টো মেট্টো-ব-১১-১২৬৪) মোটরসাইকেলটির সামনে এসে ধাক্কা দেয়।

সাথে সাথে পেছনে বসা বিউটি রাস্তায় ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। আর বাবরও মারাত্মক আহত হন।

পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে দুইজনকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। লোকজন বাস চালক ও সুপারভাইজারকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।