মৃত্যু সংবাদে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভা মুলতবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা শুরুর কিছুক্ষণ পরেই দলের দফতর সম্পাদক মাহামুদ হাসান বিপুর বড় বোন ও তার স্বামীর মৃত্যু সংবাদে সভা মুলতবি করা হয়। এবং শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। এর আগে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে সামনে রেখে সভার কার্যক্রম শুরু করেন সংগঠনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম মিলন। সহসভাপতি আব্দুল খালেক, অ্যাড. জহুর আহমেদ, একেএম খয়রাত হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আলী রায়হান, এসএম আফজাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর জহুরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী রফিক, এইচ এম আমির হোসেন, এসএম হাবিব, আমজাদ হোসেন লাবলু, সুখেন মজুমদার, শাহারুল ইসলাম, এহসানুর রহমান লিটু, মোর্কারম হোসেন টিপু, ওহিদুল ইসলাম তরফদারসহ দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। সভায় কেশপুর পৌর আওয়ামী লীগের কমিটি বাতিলের সিদ্ধান্ত বাতিল করে পূর্বের কমিটি বহালের নির্দেশ প্রদান করা হয়। এর পরপরই আওয়ামী লীগ নেতা মাহামুদ হাসান বিপুর বড় বোন রিনা খাতুন ও তার স্বামী মহসিন সরদারের মৃত্যুর সংবাদ আসলে তাৎক্ষণিক ভাবে সর্বসম্মতিক্রমে সভা মুলতবি ঘোষণা করা হয়। এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন এ প্রতিবেদককে বলেন একটি দুঃখজনক ঘটনার প্রেক্ষিতে সভাটি মুলতবি করা হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে মুলতবি সভাটি অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।
এদিকে, যশোর জেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক মাহামুদ হাসান বিপুর বড় বোন রিনা খাতুন ও তার স্বামী মহসিন সরদারের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন ও সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারসহ দলের নেতৃবৃন্দ। দলের উপ-দফতর সম্পাদক ওহিদুল ইসলাম তরফদার সাক্ষরিত এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় প্রয়াতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন