ডুমুরিয়ায় পাউবোর জমিতে অবৈধ স্থাপনা

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি

পানি উন্নয়ন বোর্ডের সরকারি সম্পত্তি দখল করে স্থায়ী পাকা দোকান নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা সীমান্তবর্তী বটিয়াঘাটার কৈয়া বাজারস্থ জেলের মোড় নামক স্থানে এক প্লট ব্যবসায়ী এ দোকান ঘর নির্মাণ করছেন।
এ ব্যাপারে পাউবো কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন।

জানা যায়, পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাজবাঁধ মৌজাধীন ১৮৮ নম্বর দাগে কৈয়া বাজার জেলের মোড় নামক স্থানে খুলনা শহরের জনৈক ইউসুফ আলী নামে এক প্লট ব্যবসায়ী প্রভাব খাটিয়ে সরকারি সম্পত্তি দখল করে পাউবো’র রোপিত ৫-৬টি নারিকেলগাছ কেটে সেখানে ৮-১০টি স্থায়ী পাকা দোকান নির্মাণ করছেন। পাউবো কর্তৃপক্ষ বাধা দিলেও তা উপেক্ষা করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ অব্যাহত রেখেছেন।

দখলদারী প্রসঙ্গে প্লট ব্যবসায়ী ইউসুফের শ্যালক রেজাউল সিকদার বলেন, আমরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গার পাশে মালিকানা অনেক জমি ক্রয় করেছি। আমাদের জমি আমরা দখল করেছি। না হলে অন্য কেউ দখল করতো। তিনি বলেন, ঘর নির্মাণের স্বার্থে গাছগুলো কাটা হয়েছে।

খুলনার পওর শাখার উপসহকারী প্রকৌশলী তরিকুল ইসলাম বলেন, গত ১ জুলাই অবৈধ দখলদার প্লট ব্যবসায়ী ইউসুফ আলীসহ তার সহযোগী রেজাউল সিকদার ও কাশেম আলীর বিরুদ্ধে হরিনটানা থানায় এফআইআর দাখিল করেছি। ১৫ দিন হয়ে গেলো। কিন্তু থানা পুলিশ অজানা কারণে মামলাটি রুজু করতে গড়িমসি করছেন। যার কারণে অবৈধস্থাপনা দৃশ্যমান হতে চলেছে। পুলিশের রহস্যজনক ভূমিকার বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

হরিণটানা থানার ওসি আশরাফুল বলেন, পাউবো কর্তৃপক্ষ শুধু থানায় নয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকটেও অভিযোগ করেছেন। ইউএনও স্যার সরেজমিনে আসবেন। এরপর হয় মামলা হবে, না হয় দখলদাররা জমি ছেড়ে দিবে।