কয়রায় জোরপূর্বক ঘের দখল ও মারপিটের অভিযোগ

::কয়রা প্রতিনিধি::
বৃহস্পতিবার সকালে খুলনার কয়রা উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন থেকে অভিযোগ করা হয়েছে উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের বাসিন্দা আছাদুজ্জামান বুলবুলের চিংড়ি ঘের জোরপূর্বক দখল ও তাকে বেধড়ক মারপিঠ করে আহত করা করেছে প্রতিপক্ষ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বুলবুলের স্ত্রী সেলিনা আক্তার (ডলি)।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, দক্ষিন বেদকাশি ইউনিয়নের গোলখালী গ্রামের মৃত হামিদ গাজীর পুত্র তায়জুল ইসলামের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন লোক গত ৬ জুন তার স্বামীর মৎস্য ঘেরটি জোরপূর্বক জোর করে দখল করে নেয়। এতে তিনি বাধা দিলে তাকে বেধড়ক মারপিঠ করে আহত করে। সেই থেকে তিনি প্রথমে খুলনায় এবং পরবর্তিতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। গত ১৪ জুলাই তাদের ৪২ বিঘার মৎস্য ঘেরের কর্মচারীদের হুমকি দিয়েছে হামলাকারীরা। তারা চরম নিরাপত্তহীনতায় ভুগছে।

বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করার পর সন্ত্রাসীরা বিষটোপ ব্যবহার করে ঘেরের বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মেরে ফেলেছে। সেই মরা মাছ নিয়ে কয়রা থানার অফিসার ইনচার্জসহ উপজেলা চেয়ারম্যনকে অভিযোগ করা হয়েছে। এরপরও কোনো সমাধান হয়নি। তাদের গোটা পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।