ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগে মামলা

জগদীশপুর ইউপি চেয়ারম্যান তবিবর রহমান খান

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::
যশোরের চৌগাছায় কৃষকদের ফসলি জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানের নামে মামলা হয়েছে। গত ৮ জুলাই জগদীশপুর ইউপি চেয়ারম্যান তবিবর রহমান খানের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন ওই ইউনিয়নের কান্দি গ্রামের ইউনুচ আলী।

উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের কান্দি গ্রামে ভৈরব নদী খননের সময় অতিরিক্ত মাটি ব্যক্তিগত ফসলি জমির উপর রাখা হয়। মাটি সরিয়ে নেয়ার প্রতিশ্রুতি থাকলেও কর্তৃপক্ষ পরে তা দখল করে রাস্তা নির্মাণের কাজ চালাচ্ছেন। এ ঘটনায় প্রতিবাদে জমির প্রকৃত মালিক ও গ্রামবাসী স্থানীয় চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ দেন। সমাধান না পেয়ে বাধ্য হয়ে যশোরের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন।

মামলার নথি সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কান্দি গ্রামে ভৈরব নদী খননের মাটি নদীর উত্তর পাশের গ্রামের তিন শতাধিক কৃষকের ফসলি জমিতে রাখে। এ সময় তারা তাদের কৃষি জমিতে নদী খননের মাটি রাখতে বাধা দেয়। খননের কাজ চালিয়ে যেতে মাটি সাময়িকভাবে রাখা হচ্ছে বলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তবিবর রহমান খান তাদের জানান। পরে তাদের এসব ব্যক্তিগত জমির উপর দিয়ে ৩০-৩৫ ফুট চওড়া ও ৫০০ ফুট দীর্ঘ কাচা রাস্তা নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন চেয়ারম্যান। ক্ষুব্ধ হয়ে গ্রামের ওয়ালিয়ার রহমানের ছেলে ইউনুচ আলী বাদী হয়ে আদালতে মামলাটি করেন। মামলার সঙ্গে ৩৬৫ জনের গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি কপিও জমা দেন।
ইউনুচ আলী জানান, কৃষকরা বিগত ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে এসব জমি ভোগদখল করে আসছেন। কিন্তু হঠাৎ করেই তাদের এ জমির উপর দিয়ে অন্যায়ভাবে রাস্তা নির্মাণ করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে জগদীশপুর ইউপি চেয়ারম্যান তবিবর রহমান খানের ০১৭৩৪৯৮৭৯৮৭ নম্বরে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি কলটি গ্রহন করেননি। পরে বিকেল সাড়ে ৬টা থেকে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

স্পন্দন/আরএইচ