‘ছেলেধরা গুজবে নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না’

:: ফরহাদ খান, নড়াইল ::
‘ছেলেধরা গুজব’ বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে নড়াইলে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা পুলিশের আয়োজনে মঙ্গলবার সকালে নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনাসভায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) বলেন, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে ‘ছেলেধরা গুজব’ ছড়িয়ে গণপিটুনিতে কয়েকজন হত্যার মধ্য দিয়ে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির অপচেষ্টা চলছে। এটা ফৌজদারি অপরাধ। ছেলেধরা গুজবে কেউ নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না। তাই প্রতিটি এলাকায় ছেলেধরা গুজবে কান না দিয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে হবে।

আইন নিজের হাতে তুলে না নিয়ে সন্দেহজনক ব্যক্তিকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করতে হবে। ৯৯৯ নম্বরে কল দিলেও অল্প সময়ের মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবে। এ বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। এছাড়া শিক্ষার্থীসহ কোনো ব্যক্তি যেনো ফেসবুক, ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এ ব্যাপারে অপপ্রচার ছাড়াতে না পারে; সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। ছেলেধরা সংক্রান্ত বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট, লাইক, শেয়ারসহ মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন পিপিএম, ওসি (তদন্ত) হরিদাস রায়, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মহিতোষ কুমার দে, সহকারী শিক্ষক ইদ্রীস আহম্মদসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

পরে নড়াইল সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে এ সংক্রান্ত আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া উভয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে ‘ছেলেধরা গুজব’ বিষয়ে জনসচেতনতামূলক প্রচারপত্র বিতরণ করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন।