‘আমরা কোনো ভাইয়ের না জননেত্রী শেখ হাসিনার লোক’

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::
আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যশোরে পালিত হয়েছে নানা কর্মসূচি। কর্মসূচির মধ্যে ছিল আলোচনাসভা, বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ।

শনিবার বিকেলে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি অ্যাড. তাপশ পাল এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় সহ দফতর সম্পাদক অজিজুল হক আজিজ, কেন্দ্রীয় নেতা আদনান সুমন ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নূরে আলম সিদ্দিকী মিলন।

সভাপতিত্ব করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান মিঠু। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সহসভাপতি অ্যাড. তাপশ পাল বলেন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান এর নেতৃত্বে গঠিত হয় স্বেচ্ছাসেবকবাহিনী। ৯৩ সালের এ দিনে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নাম দিয়ে শুরু হয় আওয়ামী লীগের সহযোগী সাংগঠন হিসেবে সাংগঠনিক কার্যক্রম।

তিনি বলেন আমরা কোনো ভাইয়ের না আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার লোক। স্বেচ্ছাসেবকলীগে কোন বিভেদ নেই। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্ব গড়ার জন্যে সহায়তা দিতে সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।

জেলা কমিটির সংগঠনিক সম্পাদক শেখ ইমামুল কবীরের সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য দেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সমীর কুন্ডু, লুৎফুল কবীর বিজু, দফতর সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন খোকন, কার্যকরী সদস্য সাজ্জাদ গনি খাঁন রিমন, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মোফিজুর রহমান ডাব্লু, সাধারণ সম্পাদক আবু সিদ্দিক, শহর স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহ্বায়ক মাহামুদুল হাসান, যুগ্ম আহবায়ক ইব্রাহীম হোসেন, শাহাজাদা নেওয়াজ প্রমুখ।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার সমুদ্র জয় থেকে আকাশ জয় করেছে। নিজের অর্থায়নে নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মাসেতু। আর এ সেতু নিয়ে চক্রান্ত শুরু হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন শিশু বলি দেয়ার গুজব রটিয়ে সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। নেতৃবৃন্দ সরকারের বিরুদ্ধে সকল চক্রান্তের প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

আলোচনা শেষে বের হয় বর্ণাঢ্য র‌্যালি। র‌্যালিটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে বকুলতলায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।