বেনাপোলে নারীসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী আটক

:: বেনাপোল প্রতিনিধি ::

যশোরের বেনাপোল সীমান্ত এলাকা থেকে পৃথক অভিযানে ১৫৩ বোতল ফেনসিডিলসহ পিংকি আক্তার (২৮), মাসুম ওরফে কালু (১৯) ও গোলাম কাওছার (৪৫) নামের তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে বিজিবি।

শনিবার বেনাপোলের ভবারবেড় গ্রামস্থ পিংকির বাড়ি থেকে ১০৪ বোতল ফেনসিডিলসহ পিংকি আক্তার ও মাসুম এবং পুটখালীর বটতলা এলাকা থেকে ৪৯ বোতল ফেনসিডিল ও মোটরসাইকেলসহ কাওছারকে আটক করা হয়।

আটক পিংকি বেনাপোল পোর্ট থানার ভবারবেড় গ্রামের মিন্টু শেখের স্ত্রী, মাসুম ওরফে কালু একই গ্রামের মৃত আকমল হোসেনের ছেলে এবং কাওছার যশোর সদর থানার গুরুদাস বাবুলেনের (পোস্ট অফিস পাড়া) মৃত গোলাম রসুলের ছেলে।

২১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার জানান, শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে দৌলতপুর বিওপির একটি টহল দল ভবারবেড় গ্রামের পিংকির বাড়ির বাজার করার ব্যাগ তল্লাশি করে ৩৪ বোতল এবং মাসুমের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পিংকির রান্না ঘরের মধ্যে সাদা বস্তার মধ্যে লুকায়িত ৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এ সময় মাদক পাচারের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পিংকি আক্তার এবং মাসুমকে আটক করা হয়।

অপরদিকে একই দিন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুটখালী বিওপি’র একটি টহল দল পুটখালী গ্রামস্থ বটতলা পোস্টের সামনে পাকা রাস্তার উপর থেকে গোলাম কাওছারের মোটরসাইকেলের সিট কভারের ভিতর অভিনব কায়দায় লুকানো ৪৯ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে। এ সময় মোটরসাইকেসহ কাওছারকে আটক করা হয়।

পরে আটকৃতদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বেনাপোল পোর্ট থানার ডিউটি অফিসার এএসআই শরিফুল ইসলাম বলেন, শনিবার দুপুরে বিজিবির সোপর্দকৃত পিংকি ও মাসুমকে যশোর আদালকে প্রেরণ করা হয়েছে। পরে কাওছারকে সোপর্দ করায় রোববার সকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।