‘ওই মিয়া কথা কানে যায় না, ছবি তুলেন ক্যা?’

:: কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি ::

‘ওই মিয়া কথা কানে যায় না, ছবি তুলেন ক্যা?’ পুলিশের হাতে আটক এক শিশু যৌন নির্যাতনকারীর ছবি তোলায় সাংবাদিকদের সঙ্গে এমন অশোভন আচরণ করেন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থানার এসআই দেলোয়ার হোসেন।

রোববার সকালে কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়া গ্রামে পুলিশের কাছে আটক যৌন নির্যাতনকারী আব্দুল কাদিরের ছবি তুলতে গিয়ে ওই দারোগার রেষানলের স্বীকার হন দুই সাংবাদিক।
স্থানীয় সাংবাদিক মিশন হোসেন জানান, এক শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা ঘটনার খবর পেয়ে সহকর্মী হাবিব ওসমানকে নিয়ে রোববার বেলা ১২টার দিকে কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়া গ্রামে যান। সেখানে গিয়ে বাড়িতে আটকে রাখা শিশু নির্যাতনকারী আব্দুল কাদের ও শিশুর বাবা-মায়ের সাথে কথা বলছিল। এমন সময় থানার এসআই দেলোয়ার হোসেন পুলিশ ফোর্স নিয়ে ওই বাড়িতে আসেন। তিনি অভিযুক্তকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিক মিশন ছবি তুলছিলেন। এ সময় ওই এসআই তেড়ে এসে ছবি তোলা নিয়ে মুখ খিস্তি করে অশোভন আচরণ করেন।
সাংবাদিকরা তার এহেন আচরণের বিষয়টি প্রেসক্লাবের সহকর্মী ও অন্যান্য সাংবাদিকদের অবহিত করেন।
সাংবাদিকরা তাৎক্ষণিক ওই এসআইয়ের বিষয়টি কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুচ আলীকে জানালে তিনি বিষয়টি জেনে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।
উল্লেখ্য, দারোগা দেলোয়ার হোসেন কালীগঞ্জ থানাতে যোগদানের পর থেকেই নানা দুর্নীতিসহ সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন বলে অভিযোগ আছে। তার বিরুদ্ধে একের পর এক এমন অপকর্মের কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে তিনি। গত মাসে তিনি অর্থ বাণিজ্য করেও শিশুসহ মাকে জেলহাজতে পাঠানোর সংবাদ পত্রিকায় বের হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে থানা অভ্যন্তরেই আরো এক সাংবাদিকের সাথে অশোভন আচরণ করেছিলেন।