যশোরে মিনারুল হত্যা  মামলায় আটক নেই

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

যশোর সদর উপজেলার সালতা গ্রামে নিরীহ কৃষক মিনারুল হত্যা মামলায় গত দুইদিনে পুলিশ সুনির্দিষ্টভাবে কাউকে আটক করতে পারেনি। বৃহস্পতিবার বাবু নামে তার এক বন্ধুকে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছিল। তিনি এখনও পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন।

অন্যদিকে মিনারুলের বাড় ভাই আক্তারুজ্জামান বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

গত বুধবার রাত ১০টার দিকে বাড়ির উঠানে বিচালি (খড়) কাটছিলেন মিনারুল। পাশে বারান্দায় বসে ছিলেন তার স্ত্রী বিথী খাতুন। তিনি দুই আটি বিচালি পাশের বিচালি গাঁদায় রাখতে গিয়ে নিখোঁজ হন। এরপর বহু খোঁজাখুঁজি করে তার মরদেহ ইসমাইলের বাগানের মধ্যে পাওয়া যায়। রাত দেড়টার দিকে মরদেহ যশোর জেনারেল হাসপাতালের নেয়া হয়।

এ ঘটনার পর পুলিশ মিনারুলের বন্ধু একই গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে বাবুকে আটক করে থানায় নেয়া হয়। কিন্তু তার কাছ থেকে কোনো তথ্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জলিলুর রহমান জানিয়েছেন, বাবুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়েছে। যেহেতু তারা পরস্পর ভালো বন্ধু, তাই হত্যার কারণ জানতে পারে বা পুলিশকে কোনো তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে পারে বলে মনে হয়েছিল।

এসআই জলিলুর জানান, পুলিশ হত্যার ঘটনা উদঘাটনের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।