বর্তমান সরকার মাছ উৎপাদনে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছে: শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

::শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল::

যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নমুখী বর্তমান সরকার মাছ উৎপাদনে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছে। স্বাধীনতার পর এই প্রথম বাংলাদেশ সরকার মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করে বিশ্বে তৃতীয় স্থান দখল করে আছে। যা বিস্ময়কর।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে রাজস্ব বরাদ্দের আওতায় শার্শা উপজেলা পরিষদের পুকুরসহ ১০টি প্রাতিষ্ঠানিক জলাশয়ে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ শেষে এ কথা বলেন তিনি।

শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মৌসুমি জেরিন কান্তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আরো বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশকে মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ ঘোষণা করেছে মৎস্য অধিদফতর। গত বছর দেশে ৪১ দশমিক ৩৪ লাখ মেট্রিক টন মাছ উৎপাদন হয়েছিল। বর্তমানে বাংলাদেশ ৫২ লাখ মেট্রিক টন মাছ উৎপাদনের মধ্য দিয়ে সারাবিশ্বে তৃতীয় স্থান দখল করে আছে। দেশের সকল পর্যায়ে উন্নয়নের পাশাপাশি অন্যান্য খাতের সাথে মৎস্য খাতের অগ্রগতি অসাধারণ। বিজ্ঞানীদের গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন জাতের মাছ চাষে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। ২০২২ সাল নাগাদ বিশ্বে যে চারটি দেশ মাছ চাষে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে তার শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশের নাম।

এ সময় শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে জনগণের আমিষের চাহিদা পূরণে দেশের জলাশয়গুলোকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমাদের সরকার খাদ্যের চাহিদা পূরণ করেছে। এখন দৃষ্টি পুষ্টির দিকে। এখন থেকে বিল, ঝিল, হাওর, বাঁওড়, নদীনালায় পরিকল্পিতভাবে মাছ চাষ করতে হবে।

এ সময় তিনি বাড়ির আশপাশের ডোবা, পুকুর ও জলাশয়কে ফেলে না রেখে মাছ চাষ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, মাছের চাইতে এত নিরাপদ আমিষ আর নেই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, যশোর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, সহকারী পরিচালক বদরুজ্জামান, শার্শা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা জয়দেব কুমার সিংহ, কৃষি কর্মকর্তা সৌতম কুমার শীল, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আনোয়ার কবির, শার্শা থানার অফিসার ইনচার্য (ওসি) এম মশিয়ুর রহমান, বাগআঁচড়া খামার ব্যবস্থাপক (মৎস্য ও বীজ উৎপাদন) আওছাফুর রহমান, জাকির হোসেনসহ উপজেলা প্রশাসনিক দফতরের কর্মকর্তা -কর্মচারীবৃন্দ, স্থানীয় সুফলভোগীগণ এবং পোনামাছ গ্রহণ ও অবমুক্তকরণ কমিটির সদস্যবৃন্দ।