‘৫ টাকার টিকিটে এর চেয়ে ভালো চিকিৎসা হবে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক:
‘৫ টাকার টিকিটে এর চেয়ে ভালো চিকিৎসা হবে না। ৫০০ টাকা ফি দিয়ে আমার চেম্বারে আসেন। ভালো করে দেখো দেবো। ৫ টাকায় কী আর ভালো করে দেখা যায়। এখানে ভালো মেশিন নেই।’
এভাবে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের ১১৭ কক্ষে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নজরুল ইসলাম বুধবার দুপুরে সাইফান নামে এক শিশুর স্বজনকে এসব বলেছেন।
যশোর সদর উপজেলার কুয়াদা এলাকার সোহেল রানার ছেলে সাইফানকে (২ বছর) নিয়ে আসেন তার তার মা সানজিদা বেগম ও মামা মেহেদি হাসান। টিকিট নম্বর ১৬১১৬১/৬১।
গতকাল বেলা ১২টার দিকে ডাক্তার নজরুল ইসলামের সামনে গেলে সাইফানকে না দেখেই ব্যবস্থাপত্র লিখতে শুরু করেন। এ সময় তার মামা মেহেদি হাসান ও মা সানজিদা বেগম সাইফানকে ভালো করে দেখে ব্যবস্থাপত্র লিখতে অনুরোধ করলে চিকিৎসক উপরোক্ত মন্তব্য করেন। এরপর ডাক্তার ব্যঙ্গ করে তার কক্ষের কর্মচারীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘এই কামরুল লেপ তোষক দিয়ে এই রোগীকে বাঁধ। রোগীটাকে ভালো করে দেখতে হবে! কক্ষ থেকে বের হয়ে মেহেদি হাসান সাংবাদিকদের এ অভিযোগ করেন। এ সময় সাংবাদিকরা ডাক্তার নজরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি রোগীদের ওইসব কথা বলেছেন বলে স্বীকার করে বলেন, আপনারা একটু ভালো করে লেখেন। যাতে আমার বদলি হয়। এখানে আর চাকরি করা যাচ্ছে না।
এ ব্যাপারে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুস সামাদের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বিষয়টি জানেন না বলে জানান। তবে খোঁজ নিচ্ছি বলে জানান।