যশোরে ১০ বোমাসহ দু’যুবক আটক, ৪জনের নামে মামলা

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

যশোর কোতয়ালি থানা পুলিশ ১০টি অবিস্ফোরিত বোমাসহ দুই যুবককে আটক করেছে। এ ঘটনায় চারজনের নামে কোতয়ালি থানায় একটি মামলা হয়েছে।

আটককৃতরা হলো শহরের খড়কি কাসার দীঘিরপাড় এলাকার মতিয়ার রহমানের ছেলে আফিকুর জামান জিসান (১৯) ও খড়কি রেল লাইনের পাশের আব্দুল খালেকের ছেলে রুহুল আমিন (২০) এবং পলাতক আসামি হলো খড়কি রেললাইনের পাশের আলমগীর হোসেনের ছেলে বড় আল আমিন (৩০) ও আব্দুল খালেকের ছেলে ছোট আল আমিন (২৮)।

কোতয়ালি থানার এসআই শাহজুল ইসলাম জানিয়েছেন, শুক্রবার ভোর ৫টার দিকে গোপন সূত্রে সংবাদ পেয়ে জানতে পারেন খড়কি কবরস্থানের পাশে বাইতুন নুর মসজিদের সামনের পাকা রাস্তার ওপর কয়েকজন বোমাবাজ বিপুল সংখ্যক বোমা নিয়ে অপরাধমূলক কাজের জন্য ওঁৎ পেতে আছে।

সংবাদ পেয়ে সোয়া ৫টার দিকে সেখানে পৌঁছালে ৪ জন দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পিছু ধাওয়া করে দুইজনকে আটক করা হয়। এরা হলো জিসান ও রুহুল আমিন। বাকি দুইজন পালিয়ে যায়। আটক দুইজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা পলাতক দুইজনের নাম বলে। আটক দুইজনের দেহ তল্লাশি করে ৬টি বোমা উদ্ধার করা হয়।

পরে আটক দুইজনের কাছ থেকে তথ্য পেয়ে পলাতক দুই আল আমিনের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। রেললাইনের পাশের রাশেদুল ইসলামের বস্তির খালেকের ভাড়াটিয়া ছোট আল আমিনের ঘর তল্লাশি করে ঘরের মধ্যে খাটের নিচে রাখা আরো ৪টি অবিস্ফোরিত বোমা জব্দ করা হয়। কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি।

পরে খোঁজ খবর নিয়ে জানাগেছে, আসামি ওই এলাকার চিহ্নিত বোমাবাজ ও চাঁদাবাজ। ওই এলাকায় নানা রকমের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে বেড়ায়। আটক দুইজনকে শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।