ঝিকরগাছার মাদরাসাছাত্র সোলাইমান হত্যা মামলায় সুজন অভিযুক্ত

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

যশোর ঝিকরগাছার গাজীর দরগাহ ফয়জাবাদ ফাজিল মাদরাসার ৭ম শ্রেণির ছাত্র সোলাইমান হোসেন হত্যা মামলায় সুজন হোসেনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই দেবব্রত দাস।

সুজন হোসেন যশোর সদরের ছোট মেঘলা গ্রামের নুর নবী হোসেনের ছেলে ও একই মাদরাসার ছাত্র।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, দরগাহ ফয়জাবাদ ফাজিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণিতে পড়তো সোলাইমান হোসেন। সে ওই মাদরাসার আবাসিক ছাত্র ছিল। আসামি সুজন হোসেন একই মাদরাসার ৮ম শ্রেণির অনাবাসিক ছাত্র ছিল।

গত ২ মার্চ দুপুরে সোলাইমান হোসেন তার রুমে বসে ছিল। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সুজন হোসেন একটি জ্বালানি কাঠ নিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। সোলাইমান পড়ে গেলে তাকে আরও মারপিট করে পালিয়ে যায় সুজন।

গুরুতর আহত সোলাইমানকে প্রথমে যশোর পরে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন মারা যায়।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা শার্শার অগ্রভুলোট গ্রামের জাকির হোসেন বাদী হয়ে ঝিকরগাছা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে আসামির দেয়া তথ্য ও সাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় সুজন হোসেনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। চার্জশিটে অভিযুক্ত সুজনকে আটক দেখানো হয়েছে।