যশোর পৌরসভার ২৫ হাজার পরিবার পাচ্ছে মশক নিরধক মেশিন ও ওষুধ

 

 

::মিরাজুল কবীর টিটো::

যশোর পৌর এলাকার ২৫ হাজার পরিবার পাচ্ছে ৫ হাজার পিস হ্যান্ড স্প্রে মেশিন ও ৫ হাজার বোতল ওষুধ। রোববার পৌর কমিউনিটি সেন্টারে স্প্রে মেশিন ও ওষুধ বিতরণ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ১২০ জনের মাঝে স্প্রে মেশিন ও ওষুধ বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ।

যশোরের পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আবুল কালাম আজাদ লিটু, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাক্তার এফএ হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক সার্কেল) গোলাম রব্বানী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দৈনিক স্পন্দনের নির্বাহী সম্পাদক মাহাবুব আলম লাবলু, পৌরসভার প্যানেল মেয়র হাবিবুর রহমান চাকলাদার মনি, সিটি ক্যাবলের চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন বাবু, কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আহমেদ সাকিল, মোকসিমুল বারী অপু, গোলাম মোস্তফা, সন্তোষ দত্ত, আজিজুল ইসলাম,রাসেদ আব্বাস রাজ ,জেলা যুবলীগের যুগ্মসম্পাদক আজহার হোসেন স্বপন, এান সম্পাদক তৌফিকুল ইসরাম শাপলা প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পৌরসভার সচিব আজমল হোসেন।

এডিস মশা নিধন ও ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধের লক্ষে যশোর পৌরসভা এ উদ্যোগ নিয়েছে। আগামী ১৫ দিনে ৪ হাজার ৮৮০ জনকে হ্যান্ড স্প্রে ও ওষুধ বিতরণ করবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন শুধু কর্মচারিরা নয় নাগরিকও প্রয়োজনে মশক নিধন অভিযানে নামতে পারেন তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। নাগরিকরা তাদের বাড়ির আঙ্গিনায় ও ঘরের ভেতরে স্প্রে করবে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ বলেন, ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধের লক্ষে চিকিৎসকরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সেই সাথে সকল সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ডেঙ্গু প্রতিরোধের জন্য সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান অব্যাহত রয়েছে। তবে এ রোগ থেকে প্রতিকার পেতে হলে সকলকে সচেতন হতে হবে। সচেতনতা ছাড়া ডেঙ্গু প্রডিতরোধ করা সম্ভব নয়।

যশোরের পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু বলেন পৌরবাসী যে স্থানে ডেঙ্গুর অস্থিত্ব আছে বলে মনে করবেন সেখানে স্প্রে করবেন।