বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে বই পড়ার বিকল্প নেই : শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

শার্শা (যশোর) প্রতিনিধি : শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড, বেনাপোল পৌর শাখার আয়োজনে ৩ দিন ব্যাপী বঙ্গবন্ধু বইমেলা ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচিত্র প্রদর্শনী উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় বেনাপোল বলফিল্ড ময়দানে অবস্থিত পৌর কমিউনিটি সেন্টারে প্রধান অতিথি হিসেবে বইমেলার উদ্বোধন করেন যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন।
১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ৩ দিনব্যাপী বুধবার, বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার এ মেলায় থাকছে বইমেলা, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচিত্র প্রদর্শনী, হাতের লেখা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। সবশেষে প্রতিযোগী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও গাছের চারা বিতরণ।
এসময় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড বেনাপোল পৌর শাখার আহবায়ক কামরুজ্জামান তরুর সভাপতিত্বে এবং আয়োজনটির সমন্বয়ক শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ বেনাপোল পৌর শাখার মহাসচিব ফারুক হোসেন উজ্জ্বলের সঞ্চালনায় সূচনা বক্তব্যে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু বই মেলা ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমেই বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীর কর্মসূচি বেনাপোলে আমরাই প্রথম সূচনা করলাম। বঙ্গবন্ধু কি পরিমাণ বই প্রেমিক ছিল তা আমরা বঙ্গবন্ধুর ‘কারাগারের রোজনামচা’ পড়লেই বুঝতে পারি।’
তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের অনেক কিছুই জানতে হবে। আর তার সম্পর্কে প্রকৃত তথ্য জানতে আমাদেরকে অবশ্যই বই পড়তে হবে। বই পড়ার বিকল্প কিছু নেই। সেই সব ব্যক্তিদের বই আপনাদের পড়তে হবে যারা মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে জানে ও মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে। বই মেলার মধ্য দিয়ে আমরা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী অনুষ্ঠানে প্রবেশ করেছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে আমাদেরকেও বই পড়তে হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ছিল বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ভাষণ।’ তিনি যুক্তি দেখিয়ে বলেন, বিশ্বের অন্যান্য নেতাদের ভাষণ ছিল লিখিত। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর বক্তব্য লিখিত ছিল না। বঙ্গবন্ধু যা বলতেন ও করতেন তা যেন হৃদয় উজাড় করেই করতেন। তাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করেই আমাদের পথ চলতে হবে। আর যারা বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ে ধারণ করে তারা কখনও বিপদগামী হতে পারে না। আপনারা বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ে ধারণ করুণ এবং দেশের উন্নয়নে কাজ করুন। তাতে দেশ ও দশের মঙ্গলই হবে। ‘প্রতিবছর প্রচুর বই প্রকাশ হয় কিন্তু পাঠক সে অনুযায়ী বই পড়ে না। আমাদের পাঠক বান্ধব লাইব্রেরী, প্রকাশনী করতে হবে। ‘বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী’ নিয়ে চলচিত্র প্রর্দশনীর মাধ্যমে বাংলার জনগনের মাঝে পৌঁছে দিতে হবে।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নুরুজ্জামান, শার্শা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর হোসেন ও ডেপুটি কমান্ডার নাসির উদ্দীন, যশোর জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ-উদ-দৌলা সরদার অলোক, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ এনামুল মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য অহিদুজ্জামান অহিদ, বেনাপোল পৌর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহ-আলম হাওলাদার, উপজেলা বাস্তুহারালীগের সভাপতি আবুল হোসেন, শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দু রহিম সরদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রাসেল, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী মন্টু, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, বেনাপোল পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মামুন জোয়ার্দার, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আশিকুর রহমান পারভেজ, আল-ইমরান, আরিফ হোসেন রুবেল, আশিকুর রহমান, কবির, আওয়াল, জুয়েল, হারুন প্রমুখ।