চৌগাছায় শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ

::চৌগাছা প্রতিনিধি::

যশোরের চৌগাছায় ফিরোজ হোসেন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের দ্বারা এক শিশু (০৭) বলাৎকারের শিকার হয়েছে। সে স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির ছাত্র। আর বলাৎকারকারী উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের খড়িঞ্চা নওদাপাড়া (দানবাক্স) গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে এবং চৌগাছা শহরের তরিকুল ইসলাম পৌর কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র।

শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে চৌগাছা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে গ্রামে এ ঘটনা ঘটলেও সন্ধ্যা ৬টার দিকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে তাকে হাসপাতালে নেয়ার পরে থানায় জানানো হলে বিষয়টি জানাজানি হয়।

শিশুটির পিতা জানান, শিশুটি বাড়ির পাশে খেলার কোনো একসময় গ্রামের শরিফুলের ছেলে তাকে তুলে একটি ঘরে নিয়ে বলাৎকার করে পালিয়ে যায়। শিশুটি পরিবারের কাছে জানালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার চেষ্টা করা হয়। তাতেও অবস্থার অবনতি হলে তাকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে যশোরে রেফার্ড করেন।

হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক সুব্রত কুমার বাগচীর উদ্ধৃতি দিয়ে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত এসওসিএমও লিয়াকত আলী জানান, শিশুটির সেক্সুয়াল অ্যাসাল্ট রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

চৌগাছা থানার এসআই নজরুল ইসলাম বলেন, ঘটনা দুপুরে ঘটলেও তারা ৬টার দিকে আমাদের জানিয়েছে। আমিসহ থানার পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে অবস্থান করছি। শিশুটিকে যশোরে রেফার্ড করা হয়েছে।