অনলাইন প্রশ্নে নির্ভুল ও শুদ্ধ বানানে ১৫০ শিক্ষককে প্রশিক্ষণের উদ্যোগ

::মিরাজুল কবীর টিটো::

যশোর শিক্ষা বোর্ডের অনলাইন প্রশ্ন ব্যাংকের নির্ভুল ও শুদ্ধ বানানের সৃজনশীল মানসম্মত প্রশ্নে শিক্ষার্থীদের বার্ষিক ও নির্বাচনী পরীক্ষা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে ১৩টি বিষয়ের উপর শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেবে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

এজন্য শিক্ষকদের তালিকা তৈরি সম্পন্ন হয়েছে। এ তালিকায় ১০০ জন মাস্টার ট্রেইনারের সাথে সংযুক্ত করা হয়েছে ১০ জেলার ৫০জন প্রধান শিক্ষকের নাম। এদের দিয়ে নির্ভুল, শুদ্ধ বানানের সৃজনশীল মান সম্মত প্রশ্ন তৈরি করা হবে। এ তথ্য জানান বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র।

বোর্ড সূত্র জানায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্য পুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) অনুমোদিত সিলেবাস অনুযায়ী যশোর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ ২০১৬ সাল থেকে অনলাইন প্রশ্ন ব্যাংকের মাধ্যমে মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে পরীক্ষা গ্রহণ করছে।

তবে আগামী বার্ষিক ও নির্বাচনী পরীক্ষা শিক্ষার্থীরা নির্ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দিতে পারে এজন্য প্রশ্ন নির্ভুল ও শুদ্ধ বানানের সৃজনশীল মান সম্মত করতে ১০০ জন মাস্টার ট্রেইনারের সাথে সংযুক্ত করা হয়েছে বোর্ডের নির্বাচিত ৫০টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নাম। তাদেরকে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে ১৩টি বিষয়ের উপর একদিনের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

সেখানে প্রধান অতিথি থাকবেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহামুদ উল হক। এরপর তাদের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য ১৮ ও ২৮ সেপ্টেম্বর আরো দুইদিন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। ১৩টি বিষয় হচ্ছে বাংলা, ইংরেজি, গণিত, উচ্চতর গণিত, বিজ্ঞান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্ব সভ্যতা, জীব বিজ্ঞান, ভুগোল ও পরিবেশ, রসায়ন, পদার্থ বিজ্ঞান, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং, হিসাব বিজ্ঞান, বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, পৌরনীতি ও নাগরিকতা, ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা, হিন্দু ও নৈতিক শিক্ষা।

এ ব্যাপারে যশোর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, নির্ভুল, শুদ্ধ বানানের সৃজনশীল মানসম্মত প্রশ্ন আপলোড করে অনলাইন প্রশ্ন ব্যাংক আরো সমৃদ্ধ করার জন্য মাস্টার ট্রেইনারদের নিয়ে বিশেষ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে। যেহেতু প্রধান শিক্ষকরা অনলাইন প্রশ্ন ব্যাক থেকে প্রশ্ন আপলোড ও ফটোকপি করে পরীক্ষা গ্রহণ করে। এ কারণে বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান শিক্ষকদের সংযুক্ত করা হয়েছে। এর ফলে একটি নির্ভুল ও শুদ্ধ বানানের সৃজনশীল মান সম্মত প্রশ্নে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবে। তবে শিক্ষা বোর্ডের এ উদ্যোগে সন্তুষ্ট শিক্ষকরা।

যশোর জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক একেএম গোলাম আযম ও নিউটাউন বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুরাইয়া শিরিন জানান, নির্ভুল ও শুদ্ধ বানানের সৃজনশীল মান সম্মত প্রশ্ন তৈরি করতে হলে শিক্ষকদের অবশ্যই বই পড়তে হবে। এতে করে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের শুধু পড়ানোর মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখবেন না। তাদের নিজেদেরও বই পড়তে হবে। এতে করে শিক্ষকদের বই পড়ার অভ্যাস গড়ে উঠবে। ফলে তাদের অভিজ্ঞতা বাড়বে।