জুতোর মধ্যে সোনার বার, পরিবহনযাত্রী আটক

::ঝিনাইদহ প্রতিনিধি::

মুখে লম্বা দাঁড়ি, গায়ে পাঞ্জাবি, দেখলে মনে হবে আল্লাহ ওয়ালা ব্যক্তি। এমনই একজনের জুতোর ভেতর লুকানো ছিল ১২টি সোনার বার। ঢাকা থেকে দর্শনাগামী পূর্বাশা পরিবহনের একটি বাস থেকে শরীফ উদ্দিন নামে ওই ব্যক্তিকে সোনারবারসহ আটক করেছে র‌্যাব।

রোববার ভোর রাতে ঝিনাইদহ বিসিক শিল্প নগরীর সামনে বাস তল্লাাশি করে তাকে আটক করা হয়। আটক শরীফ উদ্দীন চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থানা পাড়ার শফি উদ্দিনের ছেলে।

র‌্যাব-৬ এর ঝিনাইদহ ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্তি পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন ঢাকা থেকে বাসযোগে একটি সোনার চোরাচালান দর্শনায় আসছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে রাতে বিসিক শিল্প নগরীর সামনে চেকপোস্ট বসায় তারা।

ভোরে ঢাকা থেকে দর্শনাগামী পূর্বাশা পরিবহনের একটি বাস থামিয়ে তল্লাশি চালিয়ে শরিফ উদ্দিনকে আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি করে অভিনব কায়দায় জুতোর ভেতরে লুকানো অবস্থায় ১২ পিস সোনার বার উদ্ধার করেন। যার ওজন ১ কেজি ৪০০ গ্রাম। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।