কালীগঞ্জে চিরকুট লিখে তিন সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

::কালীগঞ্জ প্রতিনিধি::

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে চিরকুট লিখে তিন সন্তানের এক জননী আত্মহত্যা করেছেন। রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে শহরের চাপালী কুঠিপাড়ায় এক ভাড়া বাড়িতে নীলা খাতুন (২৬) নামে এই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেন।

তিনি উপজেলার চেউনিয়া গ্রামের শামিরুল ইসলামের স্ত্রী। নিহতের স্বামী শহরের একটি হোটেলে কাজ করেন। তাদের নিলয়-নিরব নামের দেড় বছরের জমজ পুত্র ও ৬ বছরের শামীমা নামের একটি মেয়ে রয়েছে।

নিহত গৃহবধূর দুলাভাই নয়ন হোসেন জানান, রাতে খবর পেয়ে তিনি চাপালী গ্রামে যান। সেখানে গিয়ে জানতে পারেন নীলা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ সময় নীলার মেয়ে শামীমা তাকে একটি কাগজ দিয়ে জানায়, দুপুরের দিকে মা এ কাগজটিতে লিখেছিল। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তার কিছুই জানেন না। নীলা আত্মহত্যা করার সময় পাশের ঘরেই তার স্বামী শুয়ে ছিল।

নিলার চিরকুটে লেখা ছিল, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। আমি নিজের ইচ্ছায় গলায় দড়ি দিলাম। কেউ আমার স্বামীকে দোষ দিও না। মা তোমরা কেউ বাদী হইয়ও না। এটা আমার অনুরোধ রইল। নীলা।’

কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুচ আলী জানান, গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।