কেশবপুরের ইটভাটা শ্রমিক রওশন হত্যায় প্রেমিক আলাউদ্দিন অভিযুক্ত

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

যশোর কেশবপুর কাশিমপুর গ্রামের ইটভাটা শ্রমিক রওশন আরা হত্যা মামলায় প্রেমিক আলাউদ্দিন গাজীকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিদর্শক শাহজাহান আহমেদ। অভিযুক্ত আলাউদ্দিন গাজী কেশবপুরের কাশিমপুর গ্রামের শামছুর রহমানের ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২২ এপ্রিল কেশবপুরের কাশিমপুর গ্রামের লোকজনের সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ বাঁশবাগান থেকে অপরিচিত এক নারীর লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে কেশবপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়। এরমধ্যে নিহত অপরিচিত নারীর পরিচয় পাওয়া যায়। খুলনা ডুমুরিয়া থানার বাদুড়িয়া গ্রামের আব্বাস আলীর মেয়ে রওশন আরা।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা আব্বাস আলী বাদী হয়ে কেশবপুর থানায় অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলার তদন্ত সূত্রে জানা গেছে, আসামি আলাউদ্দিন গাজী ও রওশন আরা একই ইটভাটায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। আলাউদ্দিনের স্ত্রী-সন্তান থাকায় তাকে বিয়ে করতে রাজি ছিল না। রওশন আরা তাকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে।

গত ২১ এপ্রিল রাতে রওশন আরা তার বাড়ির সামনে এসে মোবাইলে ফোন করে দেখা করতে বলে। আলাউদ্দিন তার সাথে দেখা করলে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে।

উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে রওশন আরা তার অণ্ডকোষ চেপে ধরে। সে তখন রওশন আরার গলা চেপে শ্বাসরোধ করে।

এ মামলার তদন্তকালে আটক আসামির দেয়া তথ্য ও স্বাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় আলাউদ্দিনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। চার্জশিটভুক্ত আসামি আলাউদ্দিনকে আটক রয়েছে।