ঝিকরগাছায় বেপরোয়া বাসের চাপায় শিশুসহ নিহত ২

 

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

যশোরের ঝিকরগাছায় বেপরোয়া বাসের চাপায় শিশুসহ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের মল্লিকপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেল আরোহী তরিকুল ইসলাম (৩২) বেলেবটতলা গ্রামের মৃত আলম হোসেনের ছেলে এবং শিশু ইফ্ফাত আরা তৈয়েবা (৯) মল্লিকপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের মেয়ে। সে লাউজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। দুর্ঘটনার সময় মক্তব থেকে তৈয়েবা বাড়ি ফিরছিলো বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ২-৩ জন। তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

নাভারণ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) এসআই টিটো কুমার নাথ দৈনিক স্পন্দনকে জানান, যশোর থেকে সাতক্ষীরাগামী একটি বেপরোয়া গতির যাত্রীবাহী বাস (সাতক্ষীরা-জ-১১-০০৮৭) ঝিকরগাছার মল্লিকপুরে পৌঁছালে ঝিকরগাছা থেকে যশোরগামী একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই আরোহী তরিকুল ইসলাম নিহত হয়।

এ সময় স্থানীয় মক্তব থেকে আরবি পড়ে বাড়ি ফেরার পথে পথচারি শিশু ইফ্ফাত আরা তৈয়েবাকেও বাসটি চাপা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। পড়ে তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসআই টিটো দৈনিক স্পন্দনকে আরো জানান, নিয়ন্ত্রণহীন দ্রুত গতির বাসটি তরিকুল ও তৈয়েবাকে চাপা দিয়ে খাদে পড়ে যায়। বাসের চালক, হেলপার, কন্ট্রাকটর পলাতক রয়েছেন। লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

ঝিকরগাছা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই নজরুল ইসলাম দৈনিক স্পন্দনকে এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্পন্দন/রেজওয়ান