যশোরে ইমরোজ হত্যায় আটক আকিবুরের স্বীকারোক্তিতে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোরে চাঞ্চল্যকর ঘের ব্যবসায়ী ইমরোজ হত্যা মামলার আসামি আকিবুর রহমানের স্বীকারোক্তিতে দুই রাউন্ড গুলিভর্তি একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করেছে ডিবি পুলিশ। বুধবার ভোররাতে সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামে তার লিজ নেয়া একটি পুকুরপাড়ের মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা এই অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। পিস্তল উদ্ধারের ঘটনায় এসআই শামীম হোসেন বাদি হয়ে আকিবুর রহমানকে আসামি করে অস্ত্র আইনের বুধবার কোতয়ালি থানায় একটি মামলা করেছেন।
ডিবি পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৪ জুলাই সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের নুর ইসলাম ওরফে নুরু মহুরির ছেলে ইমরোজ হোসেন সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন। এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকার মৃত তৌহিদুল ইসলামের ছেলে আকিবুর রহমান। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই শামীম হোসেন আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে দুইদিনের রিমান্ডে নেন। গত মঙ্গলবার রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে আকিবুর রহমান স্বীকার করেন যে, তার কাছে অবৈধ পিস্তল আছে। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার রাত সোয়া ৪ টার দিকে ভাতুড়িয়া গ্রামের আকিবুর রহমানের লিজ নেয়া সিরাজুল ইসলামের পুকুরপাড়ের মাটির নিচে পলিব্যাগে রাখা দুই রাউন্ড গুলি ভর্তি একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই শামীম হোসেন জানিয়েছেন উদ্ধারকৃত পিস্তলটি ইমরোজ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত হয়নি। তবে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত পিস্তল ও চাকু তার সহযোগী অপর আসামিদের কাছে আছে বলে জানিয়েছে আকিবুর রহমান।