যশোরে উড়ন্ত ছিনতাইকালে যবিপ্রবির শিক্ষার্থী আটক

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

যশোর শহরে উড়ন্ত ছিনতাইকালে আটক হলেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) শিক্ষার্থী গোলাম রাব্বানী (২৬)। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগের (এফএবি) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র এবং জয়পুরহাট সদর উপজেলার ধলাহাট গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে।

ঘটনার সময় একজন পালিয়ে যান। তার নাম ইসমে আজম শুভ (২৩)। বাড়ি নড়াইলে। শুভও একই বিভাগের শিক্ষার্থী।

যশোর সদর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের আমির হোসেন বাবুর ছেলে সাজ্জাদ হোসেন ইমন (২০) কোতোয়ালি মডেল থানায় দায়ের করা এজাহারে উল্লেখ করেছেন, শুক্রবার রাত সোয়া ৯টার দিকে শহরের দড়াটানা থেকে একটি বাইসাইকেলযোগে কাজীপাড়ায় ভগ্নিপতির বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে রওনা হন। মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে সাড়ে ৯টার দিকে গবির শাহ রোডস্থ রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে পৌঁছালে একটি মোটরসাইকেলযোগে দুই যুবক এসে পিছন থেকে তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

তিনি তাদের পিছু ধাওয়া করে শহীদ মিনারের সামনে গেলে তারা মোটরসাইকেলে ঘুরিয়ে নিয়ে অন্য রাস্তা দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। সে সময় তিনি সামনে বাইসাইকেল আড় করে দিয়ে গতিরোধ করেন এবং গোলাম রাব্বানীকে আটক করে ফেলেন। মোটরসাইকেলের চাবি নিয়ে নেয়ার পরও অপর আসামি শুভ মোটরসাইকেল চালিয়ে দ্রুত চলে যায়।

সে সময় চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এবং পুরাতন কসবা ফাঁড়ির সদস্যরা সেখানে গিয়ে গোলাম রাব্বানীকে নিজেদের হেফাজতে নেয় এবং তার ১৪ হাজার টাকা মূল্যের মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে।

পুরাতন কসবা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সুকুমার কুন্ড জানান, ঘটনার পর গোলাম রাব্বানীকে আটক করা হয়। গোলাম রাব্বানী ছাত্রলীগের যবিপ্রবির শহীদ মশিয়ুর রহমান হল শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক বলে জানান। তিনি মোবাইল ছিনতাইয়ের কথা পুলিশের কাছে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছেন। পলাতক আসামিকে আটকের চেষ্টা চলছে।