জেএসসি পরীক্ষায় যশোর বোর্ডের ৩৯ স্কুলের কেন্দ্র বদল

✍ মিরাজুল কবীর টিটো

আগামী ১নভেম্বর থেকে অনুষ্ঠিতব্য জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় ৩৯টি বিদ্যালয়ের কেন্দ্র পরিবর্তন করেছে যশোর শিক্ষা বোর্ড। সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা গ্রহণের লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

বোর্ড সূত্র জানিয়েছে খুলনার গোয়ালী এ্যাংকরেজ স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দেবে খুলনার সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজে, ডুমুরিয়া লতা খামারবাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ডুমুরিয়ার শলুয়া পুর্ণচন্দ্র মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, জিএমএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বাগেরহাটের রামপাল শ্রীফলতলা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, সাতক্ষীরা পাবলিক স্কুল কাটিয়ার শিক্ষার্থীরা সাতক্ষীরার নবারুন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, সাতক্ষীরার মাছখোলা ও তালা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সাতক্ষীরা পি এন বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, জেএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নবারুন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, কলারোয়া হঠাৎগঞ্জ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সোনাবাড়ীয়া সম্মিলিত মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, আশাশুনি শ্রীউলা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা চম্পাফুল আ প্র চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, পাটকেলঘাটা আদর্শ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তালার আমিরুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, চুয়াডাঙ্গাড়ার কাটভাংগা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আলমডাঙ্গার পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, দামুড়হুদার হোগলডাঙ্গা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি পাইলট হাইস্কুল কেন্দ্রে, চুয়াডাঙ্গার স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা সরকারি বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, মেহেরপুরের বর্শিবাড়ীয়া বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আমঝুপি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, মিকুশিস বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাইপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়কেন্দ্রে, বিপি এন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বেতবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, কুষ্টিয়ার ফুলবাড়ীয়া বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মিরপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে, আল সালেহ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আল্লারদর্গা নাসির উদ্দীন বিশ্বাস মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, কুষ্টিয়া হাই স্কুলের শিক্ষার্থীরা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, কুমার খালী মহেন্দ্রপুর বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি পাইলট বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে।

যশোরের ঝিকরগাছার আশিংড়ী এনডি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ঝিকরগাছার বাঁকড়া জেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, চৌগাছার ছারা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা হাজী সরদার মর্ত্তুজা আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, চৌগাছা চাঁদপাড়া বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ছারা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, ঝিনাইদহের মহেশপুর পিজি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পাইলট বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, মহেশপুর পুরন্দরপুর বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, নড়াইলের দক্ষিনবাগডা আজিজুল হক স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা পার্ব্বতী বিদ্যাপীঠ গোবরা বাজার কেন্দ্রে, দি পাটনা একাডেমি শিক্ষার্থীরা বড়দিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, মাগুরার গোবরা পঞ্চপল্লি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বুনগাতি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, যশোর মণিরামপুর আদর্শ সম্মিলনী বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, বালিয়াদহ প্যাচাকলি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নেহালপুর স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে।

খুলনার দিঘলিয়া পথের বাজার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এম এ মজিদ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, ঝিনাইদহ শৈলকূপার দুধসরা ডিজিটাল স্কুলের শিক্ষার্থীরা গাড়াগঞ্জ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে, এসপি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কাঞ্চননগর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে, লোহাগড়ার এমদাদ হনজো আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দেবে লক্ষনপুর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, সাতক্ষীরার আগরদাড়ি রহিমা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দেবেদরগাপুর একে আর এইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে, কুষ্টিয়ার কুমার খালী এসম এন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দুর্গাপরু মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দেবে।

যশোর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, পরীক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ, শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা, যাতায়াতের নিরাপত্তার স্বার্থে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অভিভাবক ও শিক্ষকের আবেদনের প্রেক্ষিতে এটা করা হয়েছে।