কালিয়ায় নবগঙ্গার ভাঙনে বাড়ি ফসলি জমি বিলীন

✍ ফরহাদ খান, নড়াইল

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বড়কালিয়া, ব্রিহাচলা-বাগবাড়িয়া এলাকায় নবগঙ্গা নদীর ভাঙন দেখা দিয়েছে। গত এক সপ্তাহের ভাঙনে এ এলাকার বাড়িঘর, গাছপালা, আখক্ষেতসহ ফসলি জমি নদীগর্ভে চলে গেছে।

ভাঙনের কারণে অন্তত ১০টি পাকা বাড়িঘর ও শতাধিক গাছপালা নদীতে বিলীন হয়েছে। কয়েকটি ঘর অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

অনেকের মাথা গোঁজার শেষ আশ্রয়টুকু হারিয়ে গেছে। হুমকির মুখে রয়েছে আরো অনেক পরিবার। হিন্দু অধ্যুষিত এ এলাকায় দুর্গাপূজার কোনো আনন্দ নেই।

এছাড়াও উপজেলার শুক্তগ্রাম, বাহিরডাঙ্গা, দেবিপুর, পেড়লী, বড়কালিয়া, বেন্দাসহ কয়েকটি এলাকায় তীব্র নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙনে প্রায় ৩ হাজার পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন কালিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কৃষপদ ঘোষ।

তিনি বলেন, বড়কালিয়া এলাকায় ভাঙন প্রতিরোধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে কালিয়া শহর ভাঙনের হুমকিতে চলে আসবে। এছাড়া পেড়লী বাজার নবগঙ্গা নদীর পানিতে নিমজ্জিত হওয়ায় অধিকাংশ দোকানসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোও পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

এদিকে, নবগঙ্গা নদীর ভাঙন প্রতিরোধের দাবিতে মানববন্ধন করেছে নড়াইলের কালিয়া পৌরসভার বড়কালিয়া এলাকাবাসী। সোমবার সকালে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তব্য রাখেন বড়কালিয়া এলাকার মনিষা ঘোষ, প্রফুল্ল বর্মন, লিটন কুমার ঘোষ, কল্যাণী বর্মন, মদন ঘোষ, ব্রিহাচলার উজ্জ্বল ঘোষ প্রমুখ।

এ ব্যাপারে নড়াইল-১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি বলেন, কালিয়া পৌরসভাধীন বড়কালিয়া ও ব্রিহাচলা-বাগবাড়িয়াসহ কালিয়া উপজেলার অন্য এলাকার ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হয়েছে। দ্রুত কাজ শুরু হবে।