খাঁটি প্রেম তিনবার

বিনোদন ডেস্ক :  হাত থেকে হঠাৎ ফসকে গেল কফির মগটা। মেঝেতে পড়ে ভেঙে চৌচির। সেদিকে তাকিয়ে শুভ্রর মনে পড়ে গেল প্রথম প্রেমটাও এভাবে ভেঙে গিয়েছিল। হঠাৎ। ভাঙনের শব্দটা শুধু হৃদয়ে ছিল। তারপর আবারও প্রেম এসেছিল। তবে সেটা টেকেনি বেশিদিন।

ভাঙা মগের টুকরাগুলোর দিকে তাকিয়ে শুভ্রর মনে হয় প্রেম কি আর বারবার আসে! পরিণতি না হোক, প্রথম ভালোবাসার স্পর্শ কি আর ভোলা যায়!

হয়ত যায় না! তবে বিশেষজ্ঞদের মত হচ্ছে একজন মানুষের জীবনে তিনবার খাঁটি প্রেম আসে। বাকিগুলো খুচরা হিসাব।

সম্পর্কবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, মানুষের জীবনে প্রেম হয়। আবার কেউ দুঃখ দিয়ে, কেউ দুঃখ নিয়ে চলে যায়। কেউ পাশে এসে দাঁড়াতে চায়, কাউকে হয়ত আমরাই পাশে এসে দাঁড়াতে চাইলেও দূরে ঠেলে দেই।

এতসব কাহিনির মধ্যে প্রেম আসলে তিনবারই খাঁটি হয়। বাকিগুলোর হিসাব না ধরলেও হবে।

রূপকথার মতো প্রেম

প্রায় সবার জীবনেই প্রথম প্রেম হয় অতি তরুণ বয়সে। যখন পৃথিবীর সব কিছুই রঙিন তখন জীবনের প্রথম প্রেমকেও মনে হয় রূপকথার মতো। ছোটবেলায় কাল্পনিক কাহিনির উপর যেমন বিশ্বাস চলে আসে, তরুণ বয়সের প্রেমেও থাকে সেরকম বিশ্বাস।

এই বয়সের প্রেমে সঙ্গীর দিকেই নজর থাকে। ছোটখাটো অন্যান্য সমস্যাগুলো ধরাই দিতে চায় না। সম্পর্কের দোহাই দিয়ে মনে করতে থাকি এটাইতো জীবন। বাস্তবতা থাকে অনেক দূরে। বাইরে থেকে যতটা অনুভূত হয়, ভেতর থেকে সঙ্গীর প্রতি আকর্ষণ-ভালোবাসাটা আরও গভীর মনে হয়।

সত্যি বলতে এই তরুণ বয়সের ভালোবাসা আমাদের আশপাশের জগতেই মতোই জীবনসঙ্গীকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবতে শেখায়।

ভালোবাসা যখন জটিল

আচ্ছা ঠিকাছে, প্রথম প্রেমটা না হয় টেকেনি। তারপর কি আর প্রেম আসবে না। অবশ্যেই আসবে। অনেককেই ভালোলাগবে। তারপরও অনেকের মাঝে একজনকে বেশি আলাদা লাগবে। আর সেটা যদি হয় প্রথম প্রেম ভেঙে যাওয়ার পরে, তাহলে ধরে নিন দ্বিতীয়টা হবে বড্ড জটিল।

এই প্রেমে পূর্ব অভিজ্ঞতার আলোকে আরও বেশি সাবধান হওয়ার চেষ্টা থাকে। সঙ্গী বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও খুঁতখুঁতে হয়ে যায় মন। অনেক সময় প্রথম সঙ্গীর থেকে সম্পূর্ণ বিপরীত ধর্মী একজনকে খুঁজে নেওয়া হয়।

সত্যি বা মিথ্যা মিলিয়ে যেভাবেই হোক চেষ্টা থাকে সম্পর্কটা নিপুণভাবে চলুক। তবে সমস্যা হচ্ছে প্রতিটা পদক্ষেপ থেকে আরও বড় ব্যর্থতা আসতে থাকে। আর এই নাটক ঘটতে থাকে আকস্মিকভাবে।

অনেকসময় দেখা যায় এসব ছোটখাটো ব্যর্থতাই দ্বিতীয় প্রেমে ভাঙন ধরায়। চিন্তা ভিন্ন খাতে বয়ে যায়। মনে হয়, এর চেয়ে একাই ভালো ছিলাম। অথবা মন খুঁজে ফেরে অন্য কাউকে। অনেকে অবশ্য প্রথম প্রেমের কাছে ফিরে যেতে চায়।

সেটা যাই হোক, দ্বিতীয় পর্যায়ের এই জটিল প্রেম আমাদের শিখিয়ে যায় ভালোবাসা ও প্রেম আমাদের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ।

পরিণত ভালোবাসা

অপেক্ষায় ক্লান্ত হয়ে আমরা যখন হাল ছেড়ে জীবন নামের নৌকাটাকে ইচ্ছে মতো চলার জন্য সাগরে ভাসিয়ে দেব বলে চিন্তা করতে থাকি, ঠিক তখনই তৃতীয় প্রেমের পদার্পণ পড়ে হৃদয়-আঙিনায়।

কিছু বুঝে ওঠার আগেই এই ভালোবাসা অনেকটা অবাঞ্ছিত মানুষের মতো এসে হাজির হয়। আর সত্যিকারের ভালোবাসা বলতে যে ধারণাটা মনের মধ্যে রয়েছে সেটার সঙ্গে কোনো মিলই থাকে না।

এই সম্পর্ক নিখুঁত হবে এমন কোনো কথা নেই। তবে সম্পর্কের বোঝাপোড়া, দুজনকে বোঝার চেষ্টা করা, অসাধারণ কোনো মুহূর্তে শুধুই অনুভূতির দিয়ে অনুভব- সব কিছু মিলিয়ে এমন একটা সম্পর্ক যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

জীবনের এই স্তরে, মানে পরিণত বয়সে তেমন কোনো বিশেষ চাহিদা থাকেনা। চেষ্টা থাকে বাকিটা জীবন অন্তত ভালোভাবে কাটিয়ে দিতে পারলেই হল। গুণগত ভালোবাসা বা প্রেম নিখুঁত করার জন্য সময় অপচয় করা হয় না। তাই এই সময় সঙ্গী যেমনই হোক, তাকে পরিবর্তন পরিবর্ধনের কোনো বিষয় কাজ করেনা। সে যা, সেই অবস্থাতেই ভালোবেসে গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত থাকি আমরা। সত্যি বলতে সঙ্গীর কাছ থেকেও ঠিক একই রকমের দৃষ্টিভঙ্গী পাওয়া যায়।

তাই বলা যায় এই পরিণত ভালোবাসা আমাদের শেখায় প্রেম নিখুঁত হওয়ার দরকার নেই। বরং বাস্তবতা মেনে সম্পর্কের বন্ধন দৃঢ় করে জীবন সমুদ্রে একসঙ্গে ভেলা ভাসানো যায়।

পাদটীকা- এবার নিজেই বুঝে নিন কোন প্রেমে চলছে আপনার জীবনে। প্রথম, দ্বিতীয় অথবা পরিণত! নাকি খুচরা হিসাব নিয়েই পড়ে আছেন?

ছবি: সৌজন্যে লা রিভ।