যশোর সদর ও কেশবপুরে আন্দোলনকারী ৪০৮ প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষককে শোকজ

নিজস্ব প্রতিবেদক:বেতন স্কেলের দাবিতে আন্দোলনকারী যশোর সদর ও কেশবপুর উপজেলার ৪০৮ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ সকল শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে। এর মধ্যে সদরের ২৫০ টি ও কেশবপুরের ১৫৮ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শেখ অহিদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, গত ১৪ অক্টোবর থেকে ১৬ অক্টোবর তিনদিন বেতন স্কেল পরিবর্তনের দাবিতে ওই শিক্ষকরা ক্লাস বন্ধ রেখে আন্দোলন করেন। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের নির্দেশে তাদের বুধবার তাদের শোকজ করা হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে অর্থাৎ ৩০ অক্টোবরের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে।
এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শেখ অহিদুল আলম জানান, শোকজের জবাব প্রতিবেদন আকারে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে পাঠানো হবে।