অবশেষে অস্ত্রসহ আটক দেখানো হলো চাকরিচ্যুত পুলিশ সদস্য মনিরকে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
আটকের চারদিন পর অবশেষে অস্ত্র মামলায় আটক দেখানো হলো চাকরিচ্যুত পুলিশ সদস্য মনির হোসেনকে (৪২)। গত মঙ্গলবার তাকে যশোরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মনির খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার বারাকপুর গ্রামেরু ইউনুচ হোসেনের ছেলে।
তবে তার চারদিন আগে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেছে পুলিশ। যশোর পুরাতনকসবা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সুকুমার কুন্ড জানিয়েছেন, সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বড় বাজারের হাটখোলা রোডের লোহাপট্টির আবাসিক হোটেল নীরবের পাশ থেকে আটক করা হয়ে। চারদিন আগে আটকের বিষয়টি সঠিক না।
তিনি জানিয়েছেন, সন্দেহজনক ঘোরাফেরা করার সময় মনির হোসেনকে আটক করা হয়। পরে তার কাছে থাকা সাদা রঙের একটি প্লাস্টিকের ব্যাগ তল্লাশি করে লোহার তৈরি একটি ওয়ান স্যুটারগান জব্দ করা হয়।
কিন্তু পুলিশের একটি সূত্রে জানাগেছে, গত ১ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে হোটেল নীরব থেকে মনির নামে একজনকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। হোটেলে মনির নিজের আইডি কার্ড দেখায়নি। হোটেলের রেজিস্ট্রারে পরিচয় শুধু নড়াইল লেখা হয়। ফলে ছলচাতুরি করে তিনি হোটেলে থাকতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার আগেই পুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে যায়। এই ক’দিন তিনি পুরাতনকসবা পুলিশ ফাঁড়িতে ছিলেন। সোমবার তাকে আদালতে অস্ত্র মামলায় আটক দেখিয়ে পাঠানো হয়েছে।
মনির হোসেন জানিয়েছেন, তিনি আগে পুলিশ ছিলেন। এখন ব্যবসায়ী।