অ্যাড.আমির হোসেনকে শোকজ যশোর আইনজীবী সমিতির

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোর অ্যাডভোকেট আমির হোসেনকে মঙ্গলবার শোকজ করেছে জেলা আইনজীবী সমিতি। তার কাছে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে শোকজের জবাব চাওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে মামলা হওয়ায় সমিতির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এরআগে আমিরকে বিতর্কিত কাজের জন্য দুইবার বহিষ্কার করা হয়েছিল।
কারণ দর্শানো নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৩ সালে আমির হোসেন সোনিয়া সুলতানা নামে এক নারীকে জোর করে বিয়ে করেন। ওই নারীর অভিযোগে ভিত্তিতে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ওই বছরের ২৮ এপ্রিল সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।
২০১৭ সালে যশোরের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে জানা যায়, এনজিও মালিককে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৩০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন আইনজীবী আমির হোসেন। এ ব্যাপারে সমিতির সভার সিদ্ধান্তে আমির হোসেনকে ওই সময় সাময়িক বহিস্কার করা হয়।
সর্বশেষ গত ৪ নভেম্বর যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। এ ছাড়া আমির হোসেনের বিরুদ্ধে নারীঘটিত একাধিক মামলা রয়েছে। সংবাদপত্রে প্রকাশিত এ সংবাদে সমিতির শৃঙ্খলা বিরোধী ও আইন পেশার অসদাচরণ ও মর্যাদাহানিকর কার্য হিসেবে বিবেচিত হয়েছে।
পেশাগত অসদাচরণ, আইনজীবীদের সুনামক্ষুন্নকারী ও গঠণতন্ত্র বিরোধী অনুরুপ কার্য করায় কেন আপনার সদস্য পদ বাতিল করা হবে না নোটিশ প্রাপ্তির ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।