চৌগাছায় ৮০ জনের জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ ইছাহকের বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চৌগাছার হাউলি গ্রামের জমি দখলের প্রতিবাদে সোমবার প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সলুয়া গ্রামের ইছাহক মন্ডল ওই গ্রামের প্রায় ৮০ জনের জমি নিজের নামে নামপত্তন করে দখল করে নেয়ার চেষ্টা করছে। অবিলম্বে ভূমিদস্যু ইছাহক মন্ডলের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন গ্রামবাসী।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন পূজা উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা দীপঙ্কর দাস রতন, পাশাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ওবাইদুল ইসলাম সবুজ, ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মহাদেব হালদার, ওয়ার্ড মেম্বর আব্দুর রহিম, সুনীল বিশ্বাস, শিবনাথ, আরিফ হোসেন, শক্তিপদ বিশ্বাস, ইমামুল, পঞ্চরাম দাস, শামসুল হুদা, রুই দাস প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে গ্রামবাসীর পক্ষে লিখিত বক্তব্যে বিপুল চন্দ্র মজুমদার বলেন, হাউলি গ্রামে হিন্দু-মুসলিম উভয় সম্প্রদায় মিলে মিশে বসবাস করে। সম্প্রতি সলুয়া গ্রামের ইছাহক কয়েকজনের পৈত্রিক জমি তার বলে দাবি করে দখল নেয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় গ্রামের লোকজন স্থানীয় ভূমি অফিসে যেয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা ওই সব জমি ইছাহকের নামে নামপত্তন করে দিয়েছেন। এখন ভূমিদস্যু ইছাহকের ভয়ে অনেকে ভীত হয়ে পড়েছেন। গ্রামের অনেক হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক ভয়ে আছেন তাদের জমি কখন দখল করে নেয় ইছাহক। অনেককে তিনি জমি ছেড়ে দেয়ার জন্য হুমকি দিয়ে আসছেন। এ অবস্থার প্রতিকার চেয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।