কলম্বিয়ায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভ, বোগোটায় কারফিউ

নিউজ ডেস্ক : কলম্বিয়ায় নতুন করে শুরু হওয়া সরকারবিরোধী বিক্ষোভের পর রাজধানী বোগোটার মেয়র এনরিক পেনালোসা শহরজৃড়ে কারফিউ জারি করেছেন।

শুক্রবার দক্ষিণ আমেরিকার এ দেশটির রাজধানীতে বিচ্ছিন্নভাবে লুটপাটের খবর পাওয়া গেছে; বিক্ষোভ থামাতে পুলিশকে কাঁদানে গ্যাসও ছুড়তে হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

আগের দিন বৃহস্পতিবার লাতিনের এ দেশটির বিভিন্ন শহরে আড়াই লাখের বেশি মানুষ সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে মিছিলে অংশ নিয়েছিল।

ন্যূনতম মজুরির পরিবর্তন, পেনশন ও কর সংস্কার, রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানসমূহের বেসরকারিকরণসহ বিভিন্ন বিষয়ে কয়েক সপ্তাহ ধরেই লাতিনের এ দেশটি সরকারবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল। আন্দোলনকারীরা সরকারের দুর্নীতি এবং ২০১৬ সালে বামপন্থি ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে স্বাক্ষরিত একটি চুক্তির বাস্তবায়ন না হওয়া নিয়েও অসন্তোষ জানাচ্ছে।

তবে সরকার বলছে, পেনশন ও কর ব্যবস্থাপনায় কোনো ধরনের পরিবর্তন আনার পরিকল্পনা নেই তাদের। আর ন্যূনতম মজুরি নিয়ে যে সিদ্ধান্তই নেওয়া হোক না কেন, তা শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমেই হবে।

প্রেসিডেন্ট ইভান দুকে উত্তেজনা প্রশমনে আগামী সপ্তাহেই ‘জাতীয় সংলাপ’ আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছেন।

সরকারবিরোধী এ বিক্ষোভের মধ্যে দক্ষিণপশ্চিমের কাউকা প্রদেশের সানতানদর দে কুইলিচাও শহরে থানায় বোমা হামলায় পুলিশের তিন কর্মকর্তার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

মাদক চোরাকারাবারি ও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জন্য বিখ্যাত অঞ্চলটিতে এ ঘটনার সঙ্গে বিক্ষোভের কোনো যোগ আছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

শুক্রবার বোগোটার মেয়র এনরিক প্রথমে তিনটি জেলায় কারফিউ জারি করলেও পরের দিকে সারা শহরে আদেশের বিস্তৃতি ঘটান।

“রাত ৮টা থেকে বোসা, সিউদাদ বলিভার এবং কেনেডি শহরে কারফিউ; রাত ৯টা থেকে শহরের বাকি অংশে এটি কার্যকর হবে। শনিবার সকাল ৬টায় কারফিউ শেষ হবে,” বলেছেন তিনি।

বিক্ষোভকারীদের অনেককে এ ঘোষণা অমান্য করেই রাতে প্রেসিডেন্ট দুকের বাড়ির সামনে পিকেটিং করেছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।