এসএ গেমসে বাংলাদেশকে প্রথম সোনা এনে দিলেন দিপু চাকমা

ক্রীড়া প্রতিবেদক :  দক্ষিণ এশিয়ান গেমসের (এসএ গেমস) এবারের আসরে তায়কোয়ান্দো থেকে প্রথম সোনা পেয়েছে বাংলাদেশ। নিজের ইভেন্ট পুমসে সেরা হয়েছেন দিপু চাকমা।

কাঠমান্ডুর সাদদোবাদোর ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে সোমবার ছেলেদের ২৯ (প্লাস) বয়স ক্যাটাগরিতে ৮ দশমিক ২৮ ও ৭ দশমিক ৯৬ স্কোর গড়ে সেরা হন দিপু। প্রথমবারের মতো এসএ গেমস খেলতে এসেই বাজিমাত করলেন তিনি।

এই ইভেন্টে দেশে ও দেশের বাইরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় ৫টি সোনা ও একটি রুপা জয়ের স্বাদ পেলেও আন্তর্জাতিক ইভেন্টে এটাই দিপুর প্রথম সেরার সাফল্য। স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বাসে ভাসছেন রাঙামাটি থেকে উঠে আসা এই অ্যাথলেট।

“দেশের বাইরে খেলতে এসেছি, দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে এসেছি। দেশকে কিছু দিতে পেরে গর্বিত। এই আনন্দ আমি আসলে এখনও বুঝতে পারছি না। আমার হাত ধরে যদি প্রথম সোনার পদক এসে থাকে, তাহলে এই আনন্দ আসলে ভাষায় প্রকাশ করার মতো না।”

“এর আগে কোনো অফিসিয়াল গেমসে কখনও সোনার পদক পাইনি। অন্যান্য দেশে খেলতে গিয়ে সোনার পদক পেয়েছি। এখানে জিতে অনেক গর্ববোধ করছি। আমি আসলে এখনও ঘোরের মধ্যে আছি। আসলে আমরা গোল্ড মেডেলের লক্ষ্য নিয়ে এখানে এসেছি। প্রস্তুতিও সেরকম ছিল।”

২০০১ সালে তায়কোয়ান্দো খেলা শুরু করলেও ২০০৮ সাল থেকে নিয়মিত হন দিপু। নেপালে আসার এক মাস আগে দক্ষিণ কোরিয়ার কোচ মিন হাক সের অধীনে কাজ করেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকরি করা এই অ্যাথলেট।

বাংলাদেশ অলিম্পিকের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা জানালেন, তায়কোয়ান্দো থেকে আরও পদক পাওয়ার আশাবাদ।

“আমি সবসময় আশাবাদী। মাহমুদুল ইসলাম রানা (সাধারণ সম্পাদক) ফেডারেশনের সঙ্গে ছিল। তার দক্ষতার পরিচয় আপনারা পেয়েছেন। ইনশাল্লাহ তায়কোয়ান্দো থেকে আমাদের আরও পদক থাকবে।”

এর আগে কারাতের কাতা ইভেন্ট থেকে দেশকে প্রথম পদক এনে দেন হুমায়রা আক্তার অন্তরা। পরে ছেলেদের ইনডিভিজ্যুয়াল কাতায় ব্রোঞ্জ জেতেন হাসান খান সান। মেয়েদের দলীয় কাতা থেকেও ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ।