কালীগঞ্জের সেই অসহায় প্রতিবন্ধী ভাই বোন পেলো ছাগল

জামির হোসেন, কালীগঞ্জ :
দৈন্যতা তুলে ধরে দৈনিক স্পন্দনসহ একাধিক পত্রিকায় ”শিখায় আলো দেখছে প্রতিবন্ধী দুই ভাই” শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে নজরে আসায় ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সেই শারিরীক প্রতিবন্ধী মনোজিতকে দেয়া হলো একটি ছাগল। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহযোগিতায় এবং স্থানীয় সোনার বাংলা ফাউন্ডেশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এ ছাগলটি প্রতিবন্ধী মনোজিত মন্ডল ও তার বোন শিখা মন্ডলের হাতে তুলে দেন প্রধান অতিথি স্থানীয় সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার। এ উপলক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবর্ণা রানী সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম.জাহাঙ্গীর সিদ্দিক ঠান্ডু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সাইদুর রহমান রেজা, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুল হাসান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মধুসুদন সাহা,সমাজ সেবা কর্মকর্তা কৌশিক খান ও সোনার বাংলার নির্বাহী পরিচালক শিবুপদ বিশ্বাস প্রমুখ।
উল্লেখ্য, শারীরিক প্রতিবন্ধী দুই ভাই হারান আর মনোজিতের একমাত্র বোন শিখা। বাবা জয়দেব মন্ডল মারা গেছেন প্রায় ২২ বছর আগে। আর বৃদ্ধা মা সুন্দরী মন্ডলের রোগে বাসা বাধা দেহ। ফলে প্রতিবন্ধী ভাইদের দেখার আর কেউ নেই। তাদের কথা চিন্তা করে শিখা ছেড়েছেন শ্বশুরবাড়ি। এখন বাবার ভিটেই ঝুপড়ি ঘর বেঁধে স্বামী-সন্তান সামলিয়েও অসহায় ভাইদের ঘিরে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন। কেননা তিনি সংসারের সামলিয়েও সারাজীবন ছাগল পালন করে প্রতিবন্ধী ভাইদের ভরন পোষনের জন্য অবিরাম কষ্ট করছেন। আর প্রতিবন্ধী দুই ভাই কর্মক্ষমহীন অন্ধ্যকার জীবনে বোন শিখায় ’আলো দেখছে প্রতিবন্ধী দুই ভাই। বৃহস্পতিবার সকালে একটি ছাগল হাতে পেয়ে দুই ভাই বোন বেজায় খুশি। তাদের বাড়ি ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের বলরামপুর গ্রামে।