যবিপ্রবি কর্মকর্তা নাজিরের বিয়ে প্রতারণা,আদালতে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের সেকশন অফিসার নাজির উদ্দিন বিপ্লবের বিরুদ্ধে প্রতারণামূলক বিয়ের অভিযোগ আদালতে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার যশোর সদরের বাহাদুরপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের মেয়ে সুরাইয়া ইয়াসমিন বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র বিচারক শম্পা বসু অভিযোগটি গ্রহণ করে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েছেন কোতয়ালি থানার ওসিকে। নাজির উদ্দিন শহরের পুলিশ লাইন এলাকার আবু মুছার ছেলে।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, আসামি নাজির উদ্দিনের সাথে সুরাইয়ার মোবাইল ফোনে পরিচয় হয়। এরপর তাদের মধ্যে সখ্যতা গড়ে ওঠে। এরপর সুরাইয়াকে বিয়ের প্রলোভন দেখায়। গত ১৬ আগস্ট নাজির উদ্দিন শহরের পালবাড়ির একটি ভবনে নিয়ে সুরাইয়াকে একটি ফাঁকা কাবিননামায় স্বাক্ষর করিয়ে নিয়ে বিয়ে হয়ে গেছে বলে জানায়। এরপর তারা স্বামী-স্ত্রী হিসেবে গত ২২ আগস্ট হানিমুনে যায়। স্বামী-স্ত্রী হিসেবে তারা হোটেলে রাত্রিযাপন করে। এরপর তাকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে বাড়িতে নিয়ে যেতে বললে নানা তালবাহানা শুরু করে। গত ৬ ডিসেম্বর তাকে বাড়িতে নিয়ে যেতে বললে বিয়ের কথা অস্বীকার করে চলে যায়। বিষয়টি মীমাংসায় ব্যর্থ হয়ে তিনি আদালতে এ মামলা করেছেন।