খুলনা রাজশাহী রুটে কপোতাক্ষ ট্রেনের বগিতে দু’দফা পাথর নিক্ষেপ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
খুলনা-রাজশাহী রুটের কপোতাক্ষ ট্রেনের একটি বগিতে দুই দফা পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। দ্বিতীয় দফার হামলায় ট্রেনের একটি বগির গ্লাস ভেঙে গেছে। অবশ্য এতে কেউ হতাহত হয়নি। ঘটনাটি জিআরপি ও রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।
ওই ট্রেনে চেপে বৃহস্পতিবার রাজশাহী থেকে যশোরে ফিরছিলেন রেডিয়েন্ট ফার্মাসিউটিক্যাল যশোরের রিজওনাল ম্যানেজার সৈয়েদুর রহমান। তিনি শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোডের মশিউল আযমের বাড়ির ভাড়াটিয়া। তিনি জানিয়েছেন, কপোতাক্ষ নামক ওই এক্সপ্রেস ট্রেনটি রাজশাহী থেকে ছাড়ে সকালে। তিনি গ নম্বর বগিতে ছিলেন। বিকেল চারটার দিকে পাবনার পাকশিতে ট্রেনটি পৌঁছালে হঠাৎ একটি পাথর জোরে আঘাত করে ট্রেনের জানালায়। সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে ঝিনাইদহের বারোবাজার ও যশোর সদরের ক্যান্টনমেন্টে স্টেশনের মাঝামাঝি স্থানে পৌঁছালে ফের একটি বড় সাইজের পাথর ছোঁড়া হয় ওই বাগির প্লাসে। সাথে সাথে বগির গ্লাস ভেঙে যায়। বগির ১৯ ও ২০ নম্বর সিটে বসা যাত্রীর সামনে গিয়ে গ্লাসের টুকরোগুলো পড়ে। ওই ট্রেনের যাত্রীদের মধ্যেও আতঙ্ক ছাড়িয়ে পড়ে। অবশ্য এতে কেউ হতাহত হয়নি। ট্রেনটি যশোর স্টেশনে পৌঁছানোর পর রেলের বিভিন্ন দফতর ও জিআরপিকে অবহিত করা হয়।
এবিষয়ে কথা হয় যশোর জিআরপির এটিএসআই রেজাউল ইসলামের সাথে। তিনি জানিয়েছেন, ট্রেনের বগিতে পাথরের হামলার ঘটনা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। সম্ভবত রেল লাইনের পাশের বস্তির ছেলেরা ওই পাথর ছুঁড়তে পারে। অনেক সময় দেখা যায় খেলার ছলে ছোট বাচ্চারা পাথর ছুঁড়তে পারে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দেখবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।