৬ষ্ঠ সমাবর্তন ঘিরে উৎসবমুখর খুবি

খুলনা প্রতিনিধি:
আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ সমাবর্তন অনুষ্ঠানের সবপ্রস্তুতি প্রায় চূড়ান্ত। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে সাজানো হচ্ছে অপরূপ সাজে। ফুলের সমাহারে শোভা পাচ্ছে প্রবেশ দ্বার থেকে মূল অনুষ্ঠান স্থল পর্যন্ত। দিনরাত কাজ চলছে। শিক্ষক-কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গঠিত ২২টি উপ-কমিটি নিরন্তর প্রচেষ্টা করছে স্ব স্ব কমিটির কার্যাদি সম্পন্নে। কর্মচারিবৃন্দও এ ক্ষেত্রে স্ব স্ব দায়িত্ব পালন করছেন। স্টিয়ারিং কমিটি এবং অর্গানাইজিং কমিটি সার্বিক প্রস্তুতি তত্ত্বাবধান ও পর্যালোচনা করছে। গোটা বিশ্ববিদ্যালয় এখন উৎসবমুখর। সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অনুষ্ঠানস্থলসহ গোটা ক্যাম্পাস ও আশপাশের এলাকা বিশেষ নিরাপত্তা মনিটরিংয়ের আওতায় নেওয়া হয়েছে।
এদিকে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তাসহ সামগ্রিক নিরাপত্তা আনুষঙ্গিক বিষয়দি নিয়ে গতকাল স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের সাথে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামানের সভাপতিত্বে এক সমন্বয়সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে আলোচনায় সংশ্লিষ্ট সকল বিষয় স্থান পায় এবং কিছু দিক-নির্দেশনা দেয়া হয়।
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। সমাবর্তনের মূল অনুষ্ঠানপূর্বে বেলা ২.০৫ মিনিটে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের অদূরে নবনির্মিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ‘কালজয়ী মুজিব’ উদ্বোধন করবেন।
সমাবর্তন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী পরিষদের কয়েকজন সদস্য, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সংসদ সদস্যবৃন্দ, সচিববৃন্দ, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যবৃন্দ, সামরিক ও বেসামরিক, বিভাগীয়, জেলা পর্যায়ের প্রশাসন, বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ, নির্বাচিত স্থানীয় সরকারের জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও ইলেকট্রনিক, প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানা হয়েছে।
এবার ৬ষ্ঠ সমাবর্তনে ৪৪৭৮ জনকে ¯œাতক, ২৫৩০ জনকে ¯œাতকোত্তর, ৫ জনকে এম ফিল ও ০৮ জনকে পিএইচ. ডি এবং ১৭ জনকে পোস্ট-গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা ইন এডুকেশন ডিগ্রি প্রদান করা হবে।