মাগুরায় শতবর্ষের পথে বঙ্গবন্ধু ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ শীর্ষক সংলাপ

মাগুরা প্রতিনিধি:
মাগুরায় শতবর্ষের পথে বঙ্গবন্ধু ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ শীর্ষক সম্প্রীতি সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে শহরের নোমানী ময়দানে জেলা প্রশাসকের আয়োজনে এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।
মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দোপাধ্যায়। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড. বীরেন শিকদার, মাগুরা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পঙ্কজ কুন্ডু, জেলা পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু, সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব, ইসলামী চিন্তাবীদ আব্দুল মমিন প্রমুখ।
প্রধান আলোচকের বক্তব্যে পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বাঙালি সংস্কৃতির মূল কথা হলো অসাম্প্রদায়িকতা ও সম্প্রীতি। ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ নামের এ সংগঠনটি দেশের বিভিন্ন এলাকায় একটি বার্তা নিয়ে ঘুরছে, আর সেটা হলো-দেশের মানুষ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়, অসাম্প্রদায়িক চেতনায়, ধর্ম নিরপেক্ষতা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পথে যেন থাকে। বাংলাদেশকে একটি মানবিক ও সুন্দর জাতি হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশ ও জাতি আবার ইতিহাসের সঠিক পথে ফিরে এসেছে।
সভায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু আজীবন অসাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাসী ছিলেন । সর্ব ধর্মের সমন্বয় ও পারস্পারিক সম্প্রতি ছিল এই জ্যোতির্ময় নেতার জীবনদর্শন । তার এ আদর্শজীবন মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে সরকার সম্প্রতির সংলাপের আয়োজন করেছে । তাই বাংলাদেশ আরো সমৃদ্ধিশীল ও উন্নয়নশীল করতে দেশের সকল মানুষের মধ্যে সম্প্রতির মনোভাব ছড়িয়ে দিতে হবে । ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নতশীল দেশে পরিণত করতে এ দেশের সকল মানুষের মধ্যে সম্প্রতি প্রয়োজন ।
সংলাপে সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদ, মুক্তিযোদ্ধা, আইনজীবী , শিক্ষক, চিকিৎসক,ইমাম,বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন ।